ঢাকা | এপ্রিল ১৮, ২০২৪ - ১১:৪৬ অপরাহ্ন

রাবির সার্বিক উন্নয়নে কাজ করতে চান রাসিক মেয়র

  • আপডেট: Thursday, May 5, 2022 - 9:45 pm

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষা ও গবেষণার মানোন্নয়নসহ সার্বিক উন্নয়নে সহযোগিতা প্রদানের প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের (রাসিক) মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। বিশ্ববিদ্যালয়টির গুণগত মানোন্নয়নের মাধ্যমে বিশ্বের অন্যতম সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ করে গড়ে তোলা, ক্যাম্পাসের সৌন্দর্য বৃদ্ধি, বরেন্দ্র রিসার্চ মিউজিয়ামের দুষ্প্রাপ্য নিদর্শনগুলো সংরক্ষণ ও প্রদর্শনের ব্যবস্থা, ক্যাম্পাসের কাজলা ও বিনোদপুর গেটে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ এবং বোটানিক্যাল গার্ডেনের দুষ্প্রাপ্য ও বিপন্ন প্রজাতির গাছগুলো সংরক্ষণসহ অন্যান্য খাতে রাবিকে সহযোগিতা প্রদান করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

গত ৩ মে পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন সিটি মেয়রের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তারের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় প্রসঙ্গক্রমে এসব বিষয়ে আলোচনা হয়। এদিন বিকেল ৫ টা থেকে সাড়ে ৭ টা পর্যন্ত মেয়রের বাসভবনে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়ের পাশাপাশি তাঁরা রাবির বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। সেখানে অন্যদের মধ্যে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মো. সুলতান-উল-ইসলাম, প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পান্ডে প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনাকালে সিটি মেয়র রাবি উপাচার্যকে আশ্বস্ত করে বলেন, রাজশাহী শহরে অবস্থিত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক পরিচালিত বরেন্দ্র রিসার্চ মিউজিয়ামের প্রাচীন পুঁথির পাণ্ডুলিপি ও পুরাকীর্তিগুলো সংরক্ষণ ও মিউজিয়ামের স্থান বৃদ্ধি করে দুষ্প্রাপ্য পাণ্ডুুলিপি প্রদর্শনের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিবে সিটি কর্পোরেশন। বর্তমানে মিউজিয়ামটিতে স্থান সংকুলান না হওয়ার কারণে ১৯ হাজারেরও বেশি পাণ্ডুুলিপির মধ্যে প্রায় ১৮ হাজার পাণ্ডুুলিপিই প্রদর্শন করা সম্ভব হয় না। দেশের প্রাচীনতম এই জাদুঘরটি সংস্কার ও পরিবর্ধন করে পর্যটক আকর্ষণ কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে সহযোগিতা করতে চান সিটি মেয়র।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আধুনিক জ্ঞান সৃষ্টি ও উৎকর্ষতা বৃদ্ধি করে শিক্ষা ও গবেষণার মানের উন্নতি ও মানদণ্ড পূরণ করে বিশ্বের অন্যান্য সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ করে গড়ে তুলতে সকল প্রকার সাহায্য-সহযোগিতা প্রদানেরও আশ্বাস দেন সিটি মেয়র। বিশ্ববিদ্যালয়ের বোটানিকাল গার্ডেনে দুষ্প্রাপ্য ও বিপন্ন প্রজাতির গাছগুলো সংরক্ষন করে আন্তর্জাতিকমানের উদ্ভিদ গবেষণাগার হিসেবে গড়ে তুলতে সহযোগিতা প্রদান করবেন বলে জানিয়েছে সিটি কর্পোরেশন। দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে একমাত্র রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থিত ১৬ একর আয়তন বিশিষ্ট এই বোটানিকাল গার্ডেনটি সংরক্ষণ করে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক গবেষকদের আকৃষ্ট করার পাশাপাশি নান্দনিকতা ও সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে বিনোদন পার্ক হিসেবে পর্যটক আকর্ষণ হিসেবেও গড়ে তোলার জন্য কাজ করবে সিটি কর্পোরেশন।

এছাড়াও ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কের সংস্কার কাজের সময় ক্যাম্পাসের বিনোদপুর ও কাজলা গেটে দুটি ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করা হবে বলে জানিয়েছেন সিটি মেয়র। সেইসাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক সৌন্দর্যবর্ধনে সহায়তা করারও আশ্বাস দেন সিটি মেয়র।