ঢাকা | জুলাই ১৮, ২০২৪ - ৫:৩১ অপরাহ্ন

কোটিপতি হতে গিয়ে নি:স্ব রবিউল, অবশেষে গ্রেপ্তার

  • আপডেট: Monday, April 18, 2022 - 10:56 pm

দুর্গাপুর প্রতিনিধি: চারটি চেক জালিয়াতি মামলার গ্রেপ্তারী পরোয়ানা ভুক্ত পলাতক আসামী দুর্গাপুর উপজেলার কিসমত গণকৈড় গ্রামের রবিউল ইসলাম (৩০) কে গ্রেপ্তার করেছে মাদারীপুরের শিবচর থানা পুলিশ।

তাকে গ্রেপ্তারের পর রোববার মধ্যেরাতে রবিউলকে দুর্গাপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়। সোমবার দুপুরে তাকে জেল হাজাতে প্রেরণ করে দুর্গাপুর থানার পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি হাশমত আলী।

ওসি হাশমত আলী বলেন, রবিউল কোটিপতি হতে চেয়ে ছিলেন। সে পেশায় দিনমজুর ছিল। কামলা দিতেন মানুষের বাড়িতে। বাবা আয়েজ উদ্দিনও কামলা দেন মানুষের বাড়িতে। রবিউল ও তাঁর পিতা দুইজনে মিলে হাড়ভাঙা খাঁটুনি খেটে যে আয় করতেন, সেখান থেকে সংসারে খরচ বরচ শেষে কিছু টাকা সঞ্চয় করতেন। সঞ্চয়ের সেই টাকা দিয়ে বাপ-বেটা মিলে কিনে ফেলেন চার বিঘা জমি। ভালই চলছিল তাদের সংসার।

এদিকে টাকা বেড়ে যাওয়ায় এক পর্যায়ে রবিউলের লোভ বেড়ে যায়। কোটিপতি হবার স্বপ্ন দেখেন তিনি। তাই সামান্য পুঁজি নিয়ে শুরু করেন পুকুর ব্যবসা। বড় বড় পুকুর বাঁকিতে লিজ নিয়ে মাছ চাষ শুরু করে। ব্যাংক চেক জমা দিয়ে বাঁকিতে মাছের খাদ্য কিনতে থাকেন। শুধু তাই নয়, এক পর্যায়ে চড়া সুদে দাদন ব্যবসায়ীদের কাছে ব্যাংক চেক জমা দিয়ে টাকা ধার নিয়ে পুকুর লিজের টাকা শোধ করেন।

তবে এ বিপুল ঋণের টাকা মাছ বিক্রি করে শোধ করবেন বলে পরিকল্পনা ছিল তাঁর। কিন্তু রবিউল শরীর ঘামানো ও ঋণ করা বিপুল পরিমাণ টাকা খরচ করে তিলে তিলে বড় করা মাছ বেশি দামে বিক্রির আশায় নিয়ে যান ঢাকার এক আড়তে। আড়তদার বেশি দামে তাঁর কাছে থেকে বাঁকিতে মাছ কিনে নেয়। এইভাবে এক সপ্তাহে ঢাকার ওই আড়তে ৭০ লাখ টাকার মাছ সরবরাহ করেন রবিউল।

এরপর আড়তদার পালিয়ে যান। রবিউল পড়ে মহা বিপদে৷ টাকা উদ্ধার করতে না পেরে পূর্বে কেনা চার বিঘা জমি বিক্রয় করে ফেলেন তিনি। শোধ করেন ঋণের কিছু আংশিক টাকা। এরপর বউ বাচ্চা নিয়ে ঋণের দায়ে পালিয়ে যান। পাওনাদাররা টাকা না পেয়ে চারটি চেক জালিয়াতির মামলা দায়ের করেন। ওই চারটি মামলায় তার নামে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি ছিল ০৪ বছর যাবত।

ওসি আরও বলেন, আমরা জানতে পারি রবিউল শিবচর থানায় দীর্ঘ চার বছর পলাতক আছেন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন স্যারের সহযোগিতায় রবিউলকে মাদারীপুর জেলার শিবচর থানা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। দুর্গাপুর থানায় হস্তান্তরের পর গতকাল দুপুরে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।