ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৯, ২০২৪ - ৩:১১ পূর্বাহ্ন

মালা-চুড়ি দেখে মায়ের কঙ্কাল চিনলেন ছেলে

  • আপডেট: Friday, April 15, 2022 - 9:11 pm

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার এক বৃদ্ধা নিখোঁজ হয়েছিলেন প্রায় ছয়মাস আগে। অনেক খুঁজেও তাঁর সন্ধান পাওয়া যায়নি। লাভ হয়নি থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেও। হঠাৎ ডোবার মধ্যে পাওয়া কঙ্কালের ভেতর গলার মালা ও হাতের চুড়ি দেখেই হারানো মাকে চিনলেন তাঁর ছেলে।

মৃত ওই বৃদ্ধার নাম শেরজান বিবি (৯৩)। পুঠিয়া উপজেলার ভাড়ড়া গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন তিনি। তাঁর স্বামীর নাম মৃত নূর আলী মণ্ডল। বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) সকালে ভাড়ড়া গ্রামের এক ডোবায় পাওয়া কিছু হাড়গোড়কেই মায়ের কঙ্কাল বলে শনাক্ত করেছেন তাঁর ছেলে লুৎফর হোসেন।

পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ভাড়ড়া গ্রামে কয়েকজন ব্যক্তি ডোবার পানি সেচে মাছ ধরছিলেন। তখন কচুরিপানার ভেতর একটি মানুষের হাড়গোড় পাওয়া যায়। হাড় থেকে পঁচে মাংস খসে যাওয়ায় কার লাশ তা চেনার উপায় ছিল না। এ কথা গ্রামে ছড়িয়ে পড়লে একে একে সবাই দেখতে যান।

খবর পেয়ে যান শেরজান বিবির ছেলে লুৎফর হোসেনও। তিনি কঙ্কালের মধ্যে থাকা গলার মালা ও হাতের চুড়ি দেখে বলেন, এটিই তাঁর নিখোঁজ হয়ে যাওয়া মায়ের কঙ্কাল। ওসি জানান, শেরজান বিবির নিখোঁজের বিষয়ে থানায় জিডি হয়েছিল। তাঁর মৃত্যুর বিষয়ে পরিবারের কোন অভিযোগ ছিল না। তাই কঙ্কালটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। সেটি দাফন করা হয়েছে।