ঢাকা | জুলাই ১৭, ২০২৪ - ১:১৯ পূর্বাহ্ন

বাঘায় নোটিশ ছাড়াই বিদ্যুতের মিটার খুলে নেওয়ার অভিযোগ

  • আপডেট: Saturday, April 9, 2022 - 10:01 pm

বাঘা প্রতিনিধি: চলছে পবিত্র রমজান মাস। পাশাপাশি ভ্যাপসা গরম। এরমধ্যে শত অনুরোধের পরও পল্লী বিদ্যুতের দুইজন লাইনম্যান ঘরে লাগানো মিটার খুলে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শনিবার দুপুরে এই মিটার খুলে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন মিটারের মালিক আবদুল জলিল। তারপর থেকে পরিবার গরমে পড়েছে বেকায়দায়।

জানা যায়, বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌরসভার গোচর গ্রামের আবদুল জলিল তার কাঁচা বাড়িতে নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর অধীনে মিটার নিয়ে বিদ্যুত পরিচালনা করে আসছিলেন। এরমধ্যে তিনি কিছু ইট কিনে আধাপাকা ঘর দেন। সেই কাঁচা ঘরে যে স্থানে মিটার লাগানো ছিল, পরে পাকা ঘরে ওই স্থানেই মিটার লাগিয়েছেন। তবে অফিসকে মিটারের বিষয়ে বাড়ির মালিক আবদুল জলিল কোন অবগত করা হয়নি বলে জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, আমার কোন বিলও বকেয়া নেই। এই গরমের মধ্যে থাকা কঠিন হবে মর্মে, লাইনম্যানকে অনুরোধ করেছি। তিনি বলেন, আমার কোন অপরাধ হলে আপনাদের অফিসে গিয়ে সেটা ব্যবস্থা করবো, এই গরমের মধ্যে মিটার খুলে নিলে খুব অসুবিধার মধ্যে পড়তে হবে। তারপরও তারা আমার অনুরোধ কর্ণপাত করেনি। মিটার খুলে নিয়ে গেছে।

সমিতির অনেক নিয়ম আছে জানি, তবে গ্রাহক কোন ভূল করলে আগে নোটিশ দিয়ে জানিয়ে দিয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান তিনি। অফিসের পক্ষে কোন নোটিশ না দিয়ে আড়ানী অভিযোগ কেন্দ্রের লাইনম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ও আবদুর রাজ্জাক মিটার খুলে নিয়ে গেছে।

আড়ানী অভিযোগ কেন্দ্রের ইনচার্জ সামসুল হক বলেন, কোন গ্রাহক অপরাধ করলে তাৎক্ষনিক নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ ব্যবস্থা নিবেন। সেই নির্দেশ মোতাবেক মিটার খুলে আনা হয়েছে।

এ বিষয়ে বাঘা জোনাল অফিসের ডিজিএম সুমির কুমার দত্ত বলেন, যেহেতু মিটার খুলে নিয়ে এসেছেন। নতুন করে আবেদন করলে সংযোগ দেওয়া হবে।

এ বিষয়ে নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর জেনারেল ম্যানেজার মোমীনুল ইসলাম বলেন, সমিতির নিয়ম অনুযায়ী লাইনম্যান কাজটি করেছেন। তবে এখন আবেদন করলে নতুনভাবে সংযোগ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।