ঢাকা | জুলাই ২০, ২০২৪ - ৫:০৩ পূর্বাহ্ন

দুর্গাপুরে বাবাকে ছুরিকাঘাতের পর স্ত্রীকে হত্যা স্বামী পলাতক

  • আপডেট: Thursday, April 7, 2022 - 9:42 pm

দুর্গাপুর প্রতিনিধি: দুর্গাপুরে পরকীয়া সন্দেহের জের ধরে বাবাকে ছুরিকাঘাতের পর শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে স্ত্রী সুমাইয়া আক্তার যুথিকে (২২) শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠছে স্বামী গোলাম মোস্তফার বিরুদ্ধে।

গত বুধবার দিবাগত রাত নয়টার দিকে উপজেলার কিশোরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পেশায় রাজমিস্ত্রী গোলাম মোস্তফা ঘটনার পরই শ্বশুরবাড়ি থেকে পলাতক রয়েছেন। এর আগে সন্ধ্যায় গোলাম মোস্তফা তাঁর বাবা আবুল কালামকে ছুরিকাঘাত করে। তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

যুথির বাবা আবু হানিফ বলেন, দুই বছর আগে বর্ধনপুর গ্রামের আবুল কালামের ছেলে মোস্তফার সঙ্গে তাঁর মেয়ের বিয়ে হয়। তাদের একটি পুত্র সন্তানও রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই তাঁর শ্বশুর যুথিকে উত্ত্যক্ত করতো। গত বুধবার দুপুরে যুথিকে ঘরের চাতালে পেঁয়াজ নিয়ে তুলে দেন তাঁর শ্বশুর। এ সময় তিনি (শ্বশুর) ঘরের চাতালে যুথিকে জাপটে ধরে যৌন হেনস্তা করেন।

এ ঘটনায় অভিমান করে যুথি আমার বাড়িতে চলে আসেন। পরে জামাই মোস্তফা রাজমিস্ত্রীর কাজ শেষে সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরে এ ঘটনা শোনেন। পরে ক্ষিপ্ত হয়ে তাঁর বাবা আবুল কালামকে ঘরে শুয়ে থাকা অবস্থায় পেটে ছুরিকাঘাত করে আমার বাড়িতে এসে যুথিকে ঘরের মধ্যে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানায়, যুথির সঙ্গে তাঁর শ্বশুরের পরকীয়া সর্ম্পক ছিল। গত বুধবার এ ঘটনা জানার পর ক্ষিপ্ত হয়ে মোস্তফা প্রথমে তাঁর বাবা আবুল কালামকে ছুরিকাঘাত করে গুরুতর আহত করে। পরে তাৎক্ষনিক শ্বশুর বাড়ি চলে আসেন। এবং কৌশলে তাঁর স্ত্রী যুথিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে সেখান থেকে মোস্তফা পালিয়ে যায়।

দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি হাশমত আলী বলেন, পরকীয়ার জেরে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। যুথির মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।