ঢাকা | জুলাই ২৪, ২০২৪ - ১১:১৭ পূর্বাহ্ন

মার্চে রেমিট্যান্সে বড় উত্থান

  • আপডেট: Sunday, April 3, 2022 - 7:50 pm

 

অনলাইন ডেস্ক: বৈশ্বিক মহামারির মধ্যে ২০২০-২১ অর্থবছরে রেকর্ড রেমিট্যান্স এসেছে দেশে। কিন্তু চলতি অর্থবছরে কমতে থাকে রেমিট্যান্স। গত ফেব্রুয়ারিতে তা নেমে আসে দেড় শ কোটি ডলারের নিচে। মাত্রই বিদায় নেওয়া মার্চ মাসে ঘুরে দাঁড়িয়েছে রেমিট্যান্স প্রবাহ। এই মাসে ১৮৬ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১৬ হাজার কোটি টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ প্রতিবেদনে রেমিট্যান্সের এ তথ্য জানা গেছে।

সম্প্রতি সরকার প্রবাসীদের জন্য নগদ প্রণোদনা দশমিক ৫০ শতাংশ বাড়িয়ে আড়াই শতাংশ করেছে। করোনার সংক্রমণ কমে আসায় বিশ্বে ব্যবসা-বাণিজ্য, ভ্রমণ, চিকিৎসা, শিক্ষাসহ নানা কর্মকাণ্ড স্বাভাবিক হয়ে আসছে। রেমিট্যান্স বৃদ্ধিতে এসব ভূমিকা রখেছে বলে জানান সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

এ ছাড়া পবিত্র রমজান মাস সামনে রেখে প্রবাসীরা তাদের পরিবারের জন্য বাড়তি অর্থ দেশে পাঠিয়েছেন, যা বৈধ পথে রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়িয়েছে বলে জানান তারা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, মার্চ মাসে দেশে ১৮৬ কোটি ডলার বা ১৫ হাজার ৯৯৬ কোটি টাকা (১ ডলারে ৮৬ টাকা ধরে) রেমিট্যান্স এসেছে দেশে, যা ফেব্রুয়ারি মাসের চেয়ে ৩৭ কোটি ডলার বা ৩ হাজার ১৮৪ কোটি টাকা বেশি। ফেব্রুয়ারিতে এসেছিল ১৪৯ কোটি ডলার বা ১২ হাজার ৮৮২ কোটি টাকা। তার আগে জানুয়ারিতে এসেছিল ১৭০ কোটি ডলার বা ১৪ হাজার ৬২০ কোটি টাকা।

অর্থাৎ চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে রেমিট্যান্স প্রবাহে বড় ধরনের ধস দেখা গেছে বলা যায়। ফেব্রুয়ারির ১৪৯ কোটি ডলার থেকে মার্চে এক লাফে উঠে গেছে ১৮৬ কোটি ডলারে। তবে গত বছরের মার্চের চেয়ে এবার একই সময়ে ৫ কোটি ডলার কম এসেছে রেমিট্যান্স।

এ নিয়ে চলতি অর্থবছরের জুলাই-মার্চ পর্যন্ত নয় মাসে দেশে রেমিট্যান্স এসেছে ১ হাজার ৫৩০ কোটি ডলার, যা আগের অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ৩০১ কোটি ডলার কম। ওই অর্থবছরে এ সময়ে রেমিট্যান্স এসেছিল এক হাজার ৮৩১ কোটি ডলার।