ঢাকা | জুলাই ১৮, ২০২৪ - ২:৪৩ পূর্বাহ্ন

দেশে চাহিদা অনুযায়ী বিদ্যুৎ উৎপাদিত হচ্ছে: সংসদে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

  • আপডেট: Sunday, April 3, 2022 - 2:42 pm

অনলাইন ডেস্ক: দেশে চাহিদা অনুযায়ী বিদ্যুৎ উৎপাদিত হচ্ছে বলে সংসদকে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। রোববার সংসদের বৈঠকে প্রশ্নোত্তরে তিনি এতথ্য জানান। এর আগে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠকের শুরু হলে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপিত হয়।

জাতীয় পার্টির শামীম হায়দার পাটোয়ারির প্রশ্নের জবাবে নসরুল হামিদ বলেন, দেশে বর্তমানে বিদ্যুতের মোট স্থাপিত উৎপাদন ক্ষমতা ২৫ হাজার ৫১৪ মেগাওয়াট (ক্যাপটিভ ও অফগ্রিড নয়ানযোগ্য জ্বালানিসহ)। বর্তমানে বিদ্যুতের চাহিদার পরিমাণ বেড়ে গড়ে প্রতিদিন ১৩ থেকে সাড়ে ১৩ হাজার মেগাওয়াট। চাহিদা অনুযায়ী বিদ্যুৎ উৎপাদিত হচ্ছে।

সরকারি দলের সাংসদ এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে নসরুল হামিদ বলেন, এলএনজি আমদানিতে ২০২১-২২ অর্থবছরে পেট্রোবাংলাকে অর্থ বিভাগ থেকে চার হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি/অনুদান দেওয়া হয়েছে।

জাতীয় পার্টির সাংসদ মুজিবুল হকের প্রশ্নের জবাবে নসরুল হামিদ বলেন, সমুদ্রাঞ্চলে অবস্থিত ব্লকগুলো নিজেরা খনন করার পরিকল্পনা আপাতত সরকারের নেই। অগভীর এবং গভীর সমুদ্রাঞ্চলে তেল-গ্যাস অনুসন্ধান, উন্নয়ন ও উৎপাদনকার্যক্রম উচ্চ প্রযুক্তি নির্ভর, অত্যধিক ব্যয়বহুল ও ঝুঁকিপূর্ণ বিধায় উৎপাদন বণ্টন চুক্তির (পিএসসি) আওতায় আন্তর্জাতিক তেল কোম্পানির মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়ে থাকে।

প্রতিমন্ত্রী জানান, পেট্রোবাংলার আওতাধীন দেশীয় অনুসন্ধান কোম্পানি বাপেক্সের স্থলভাগে সক্ষমতা থাকলেও সমদ্রাঞ্চলে তেল-গ্যাস অনুসন্ধান, উন্নয়ন ও উৎপাদন বিশেষভাবে প্রযুক্তিনির্ভর ও ব্যয়বহুল হওয়ায় সে সক্ষমতা নেই।

বিদ্যুতের ২৭০২ কিমি লাইন মাটির নিচে:

বেনজীর আহমদের প্রশ্নের জবাবে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী জানান, বিদ্যুত ব্যবস্থার আধুনিকায়ন, সুষ্ঠু ও মানসন্মত বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য দেশের বড় বড় শহর যেমন মেট্রোপলিটন এলাকায় বিদ্যুৎ লাইনের তার মাটির নিচ দিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে ঢাকায় ডিপিডিসি ১২৮৭ কিমি ও ডেসকো ১৩৬৬ কিমি, বাবিউবো সিলেটে ৩৮ কি.মি. নেসকো রাজশাহী ও রংপুরে ১১ কি.মি. সহ প্রায় ২ হাজার ৭০২ কি.মি. ভূগর্ভস্থ লাইন নির্মাণ সম্পন্ন করেছে।

সোনালী/জেআর