ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৯, ২০২৪ - ৬:১৮ পূর্বাহ্ন

এটিএম বুথে পানিদরে মিলছে বিশুদ্ধ পানি

  • আপডেট: Saturday, April 2, 2022 - 9:50 pm

স্টাফ রিপোর্টার: এটিএম বুথে টাকা নয়, মিলবে পানি। এটিএম বুথে কার্ড দিলেই পাওয়া যাবে নিরাপদ খাবার পানি। সাথে থাকছে হাত ধোয়ারও ব্যবস্থা। রাজশাহী মহানগরীতে এমনই একটি নিরাপদ খাবার পানির এটিএম ও হাত ধোয়ার বুথের উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার বিকেলে প্রধান অতিথি হয়ে হযরত শাহ মখদুম দরগার সামনে স্থাপিত বুথটির উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সিটি মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন।

পরে দোয়া করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন জামিয়া ইমলামিয়া শাহ মখদুম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা শাহাদাত আলী। এ সময় সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ সরিফুল ইসলাম বাবু, এফবিসিসিআই’র পরিচালক শামসুজ্জামান আওয়াল, ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাসেল জামান, নগর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম, ইন্টারন্যাশনাল কাউন্সিল ফর লোকাল এনভায়ারর্নমেন্টাল ইনিটিয়াটিভসের (ইকলি) প্রকল্প কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল কাফি, ড্রিংক ওয়েল এর কান্ট্রি ডিরেক্টর মিজানুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জার্মান উন্নয়ন সংস্থার (জিআইজেড) অর্থায়নে রাজশাহী সিটি করপোরেশন ও ইকলি এই কার্যক্রম বাস্তবায়ন করেছে। বুথে এটিএম কার্ডের মাধ্যমে এক লিটার বিশুদ্ধ পানির মূল্য পড়বে মাত্র ৮০ পয়সা। বুথের সঙ্গে লাগোয়া একটি কক্ষে সকলের সামনেই পানি বিশুদ্ধকরণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়। অর্থ সাশ্রয়ের পাশাপাশি এই বুথের মাধ্যমে সরবরাহকৃত পানির মান বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদিত অন্য যেকোন পানির চাইতে বিশুদ্ধ হবে।

রাজশাহী ওয়াসা অথবা ভূগর্ভস্থ পানির স্তর থেকে সরাসরি সংগ্রহকৃত পানি অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে তিনটি স্তরে ফিল্টারিংয়ের মাধ্যমে বিশুদ্ধ করে তার পর তা এটিএম বুথের ভোক্তাদের কাছে সরবরাহ করা হবে। এই পানি সংগ্রহ করতে আগে থেকেই নিতে হবে কার্ড। এটিএম কার্ডের মতোই সেই কার্ডের রেজিস্ট্রেশনে খরচ পড়বে ৫০ টাকা। এরপর শুধু রিচার্জ করে নেওয়া। বুথের কর্মীর কাছ থেকেই অনলাইনে কার্ড রিচার্জ করে নেওয়া যাবে।

পানি নিতে এটিএম কার্ডের পাশাপাশি ভোক্তাকে আনতে হবে পাত্র। নগরীর বিভিন্ন অফিসে ২০ লিটার জারের মাধ্যমে বাণিজ্যিক ভাবে সরবরাহকৃত পানিতে ভোক্তাদের যেখানে খরচ হয় ৫০ টাকা, সেখানে এই বুথ থেকে পানি নিলে খরচ পড়বে মাত্র ১৬ টাকা। সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকবে এই বুথ।

বুথটির উদ্বোধনের সময় মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ইকলি ও কয়েকটি সংস্থার সহযোগিতায় নগরীতে চারটি নিরাপদ পানির এটিএম বুথ স্থাপন করা হচ্ছে। এর একটির উদ্বোধন হলো। এই চারটি পানির এটিএম বুথে সফলতা পাওয়া গেলে আরো ১০ থেকে ১৫টি স্থানে এ রকম পানির বুথ স্থাপন করা হবে। তিনি বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে নয়, নামে মাত্র মূল্যে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করায় আমাদের লক্ষ্য। নিরাপদ খাবার পানি নিশ্চিত করা এবং হাত ধোয়া বিষয়ে সমাজে সচেতনতা গড়ে তোলার কাজটি বাস্তবায়নে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন।