ঢাকা | জুলাই ১৪, ২০২৪ - ১১:৩৮ অপরাহ্ন

২০-২১ অর্থ বছরে সরকারি বস্ত্রকলে লোকসান ৩১৬৮ কোটি

  • আপডেট: Thursday, March 31, 2022 - 2:00 pm

অনলাইন ডেস্ক: বাংলাদেশ জুট মিল করপোরেশন (বিটিএমসি) নিয়ন্ত্রণাধীন মিলগুলোতে ২০-২১ অর্থ বছরে তিন হাজার ১৬৮ কোটি ৪৬ লাখ টাকা লোকসান হেয়েছে বলে জানিয়েছেন পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী।

বৃহস্পতিবার( ৩১ মার্চ) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে মন্ত্রীদের জন্য নির্ধারিত প্রশ্ন উত্তর পর্বে বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সদস্য মসিউর রহমান রাঙ্গার এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী এ তথ্য জানান।

এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন। বৃহস্পতিবারের প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপিত হয়।

মন্ত্রী আরও বলেন, গত অর্থ বছরে মিলগুলো আয় করেছে ৪৮৪ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। ব্যয় করেছে তিন হাজার ৬৫২ কোটি ৯৪ কোটি টাকা। বিটিএমসির

২৫টি বস্ত্রকলের মধ্যে ২৪টি বন্ধ রয়েছে এবং একটি ভাড়ায় চলছি। বন্ধ ২৪টির মধ্যে দুটিতে টেক্সটাইল পল্লী স্থাপন এবং দুটি পিপিপিতে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে বলে মন্ত্রী জানান।

আওয়ামী লীগের সদস্য হাবীব হাসানের এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, বর্তমানে দেশে (২০১৮ সালের শুমারি) ৫৮৯টি তাঁত ফ্যাক্টরি ও এক লাখ ১৬ হাজার ১১৭টি ইউনিট রয়েছে। পাওয়ার লুম ব্যতিত তাঁত শিল্পে বছরে প্রায় ৪৭ কোটি ৪৭ লাখ ৪০ হাজার মিটার তাঁতবস্ত্র উৎপাদিত হয়। যা দেশের বস্ত্র চাহিদার ২৮ ভাগ (পাওয়ার লুম ব্যতিত) পূরণ হয়ে থাকে।

আওযামী লীগের শরিফুল ইসলাম শিমুলের আর এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী জানান, বর্তমানে দেশের তাঁত সংখ্যা দুই লাখ ৯০ হাজার ২৮২টি।

সংরক্ষিত মহিলা আসনে ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য বেগম লুৎফুন নেসা খানের প্রশ্নের উত্তরে পাটমন্ত্রী বলেন, চলতি অর্থ বছরের ৮ মাসে ৫ দশমিক শূন্য তিন লাখ টন কাঁচাপাট রপ্তানি করা হয়েছে। এছাড়া ২০২০-২১ অর্থ বছরে ৫ দশমিক ৮৬ লাখ টন কাঁচাপাট ও ৭ দশমিক ৮২ লাখ টন পাটজাত পণ্য রপ্তানি হয়েছে।

সোনালী/জেআর