ঢাকা | জুলাই ২৫, ২০২৪ - ৪:১৩ পূর্বাহ্ন

দেশে আর কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না: তথ্যমন্ত্রী

  • আপডেট: Thursday, March 31, 2022 - 8:07 pm

 

অনলাইন ডেস্ক: দেশের সংবিধান অনুযায়ী আর কোনো তত্ত্বাধায়ক সরকার হবে না বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, নির্বাচন সরকারের অধীনে হয় না। নির্বাচন হয় নির্বাচন কমিশনের অধীনে। নির্বাচন কমিশনার স্বাধীন। সুতরাং স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের অধীনেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নওগাঁ শহরের নওজোয়ান মাঠে জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, বিএনপির বক্তব্য হলো খালি কলসী বেশি বাজার মতো। যারা জামিনের জন্য পুরুষ হয়েও মহিলাদের বোরকা পরে হাইকোর্টে হাজির হয় তারা নাকি সরকার পতন ঘটাবে। আমরা গত কয়েক বছর আগে দেখেছি বিএনপি নেতারা বোরকা পরে হাইকোর্টে জামিন নিতে গিয়েছিল। এই লজ্জা বিএনপি কোথায় রাখবে- এমন প্রশ্ন রাখেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, বিএনপি বলে বেড়াচ্ছে নিরপেক্ষ সরকার না হলে তারা নির্বাচনে আসবে না। বিএনপি নির্বাচনে আসবে কি আসবে না সেটি তাদের বিষয়।নির্বাচন যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে।

হাছান মাহমুদ আরও বলেন, ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করেনি। তারা ভেবেছিলেন ধাক্কা দিয়ে সরকার ফেলে দেবেন। বরং সরকার আরো শক্তিশালী হয়েছিল। ২০১৮ সালে বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে চেয়েছিল। আমাদের সরকার অত্যন্ত সুন্দরভাবে দেশ পরিচালনা করছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে। তাই আগামী নির্বাচনের ট্রেনে উঠবে কি উঠবে না সেটি বিএনপির সিদ্ধান্তের ব্যাপার। নির্বাচনের ট্রেন কারো জন্য অপেক্ষা করবে না।

এর আগে সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দলটির সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সম্মেলনে নওগাঁ জেলা আওয়ামীলগের সভাপতি আব্দুল মালেকের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য আব্দুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়াসহ কেন্দ্রীয় নেতারা।

পরে পুনরায় আব্দুল মালেককে সভাপতি ও সাধন চন্দ্র মজুমদারকে সাধারণ সম্পাদক করে আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়।