ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২১, ২০২৪ - ১:৫৮ অপরাহ্ন

সরকারের উন্নয়ন দেখে বিএনপির মাথা খারাপ হয়ে গেছে:তথ্যমন্ত্রী

  • আপডেট: Thursday, March 24, 2022 - 10:11 pm

দুর্গাপুর প্রতিনিধি: দেশের রাস্তা ঘাট, বহুতল ভবন, পদ্মাসেতু, মেট্রোরেল, যমুনা সেতুর রেল সংযোগ, মাতারবাড়ী কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র, রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুকেন্দ্র, পায়রা গভীর সমদ্র বন্দর, রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র ও শহর গ্রামে সরকারের বিপুল উন্নয়ন দেখে বিএনপির মাথা খারাপ হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। বৃহস্পতিবার দুর্গাপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আজকাল বিএনপি অনেক কথা বলেন। আসলে বিএনপির মাথাটাই খারাপ হয়ে গেছে। কারণ দীর্ঘ দিন তাঁরা রাষ্ট্র ক্ষমতার বাইরে। নয়াপল্টনের অফিসে বসে প্রতিদিন ঘন্টা বাজায়। রিজভী সাহেব ঘন্টা বাজায়, আর বলে আওয়ামী লীগের বিদায় ঘন্টা বেজে গেছে। কিন্তু তাতে কেউ সাড়া দেয় না, এমনকী তাদের কর্মীরাও সাড়া দেয় না।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি বলে পদ্মাসেতু হবে না। আওয়ামী লীগ পদ্মাসেতু করতে পারবে না। অথচ পদ্মাসেতু হয়ে গেছে। গত পহেলা জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মাসেতুর এপার থেকে ওপার গেছেন। এখন শুধু উদ্বোধনের পালা। তিনি বলেন, এখন আমি অপেক্ষা করছি, কখন এই পদ্মাসেতুর ওপর দিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী সাহেব যায়। অপেক্ষা করছি, তাঁরা পদ্মাসেতুর ওপর দিয়ে যায়, নাকি পদ্মাসেতুর নিচ দিয়ে আওয়ামী লীগের নৌকার চড়ে পার হয়। এটা এখন দেখার পালা।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী আওয়ামী লীগের তরুণ নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে আরও বলেন, সরকার যে উন্নয়ন করছে, তাতে কোন ভোট অন্য বাক্সে যাবার কথা নয়। যদি যায়, তাহলে বুঝাতে হবে আমাদের নেতাকর্মীর উদ্ধতপূর্ণ আচরণের কারণে গেছে। মানুষ উদ্ধতপূর্ণ আচরণ পছন্দ করে না। ক্ষমতায় থাকলে বিনয়ী হতে হয়। যারা দলের নাম ভাঙিয়ে জায়গা দখল, মাদক সিন্ডিকেট করছে তাদের দল থেকে ছিন্ন করতে হবে। শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগ সরকারের এতো অর্জন কয়েকজন উদ্ধতপূর্ণ আচারণের নেতাকর্মী ও আর কয়েকজনের অপর্কমের জন্য সেগুলো ঢাকা পড়তে পারে না। আর সবাইকে নৌকায় নেওয়ার দরকার নাই। আওয়ামী লীগ দীর্ঘদিন রাষ্ট্র ক্ষমতায়। এখন সবাই স্বার্থের জন্য নৌকায় উঠতে চায়।

দুর্গাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আব্দুল আওয়াল শামীম ও নূরুল ইসলাম ঠান্ড,ু বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কতৃপক্ষের চেয়ারম্যান বেগম আখতার জাহান। সম্মেলন উদ্বোধন করেন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিল কুমার সরকার। প্রধান বক্তা ছিলেন ছিলেন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ দারা। আরও বক্তব্য দেন দুর্গাপুর পুঠিয়া আসনের সংসদ সদস্য ডা. মনুসর রহমান, পবা মোহনপুরের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন, সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য আদিবা আনজুম মিতা, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার প্রমুখ।

সম্মেলনের শুরুতেই জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। এরপর জাতির পিতা বঙ্গবুন্ধ শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চার নেতাসহ মহান মুক্তিযুদ্ধে সকল শহিদদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। অধিবেশন শেষে দুর্গাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা করা হয়।