ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২৪ - ১২:০৫ অপরাহ্ন

বিভিন্ন উপজেলায় টিসিবি’র পণ্য বিক্রির লক্ষে সংবাদ সম্মেলন

  • আপডেট: Saturday, March 19, 2022 - 10:40 pm

সোনালী ডেস্ক: বিভিন্ন জেলা উপজেলায় টিসিবি’র পণ্য বিক্রয়ের উদ্বোধন উপলক্ষে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

পবা
পবায় টিসিবি’র পণ্য বিক্রয়ের সার্বিক কর্মকান্ড সর্বসাধারণের অবহিতকরণের লক্ষে সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপজেলা প্রশাসন। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার লসমী চাকমা। তিনি জানান, এ উপজেলার দু’টি পৌরসভা ও ৮টি ইউনিয়নে সর্বমোট ১০ হাজার ২৪ জন অসহায় কার্ডধারি ব্যক্তিদের মাঝে এই পণ্য বিক্রি করা হবে। দুই দফায় কার্ডধারি প্রতি জনের মাঝে ৫৫টাকা কেজি দরে চিনি ২কেজি, ৬৫টাকা কেজি দরে মসুর ডাল ২কেজি, ১১০টাকা কেজি দরে সয়াবিন তেল ২কেজি ও ৫০টাকা কেজি দরে ছোলা ২কেজি করে বিক্রি করা হবে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন নওহাটা পৌর মেয়র হাফিজুর রহমান হাফিজ, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আরজিয়া বেগম ও ওয়াজেদ আলী খান।

চারঘাট
চারঘাট প্রতিনিধি জানান, চারঘাটে প্রেসব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দা সামিরা বলেন, পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষ্যে চারঘাট উপজেলায় মোট ১৩ হাজার নিম্ন আয়ের জনগোষ্ঠীর মাঝে রবিবার থেকে উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় টিসিবির পন্য বিক্রয় করা হবে।

বাঘা
বাঘা প্রতিনিধি জানান, সেখানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পাপিয়া সুলতানা প্রেস ব্রিফিং করেছেন। তিনি জানান, বাঘা উপজেলার সাতটি ইউনিয়নে ও দুটি পৌরসভায় ১৪ হাজার ৭৭৭ জনকে এই পণ্য দেওয়া হবে। ইতিমধ্যে উপজেলার ১২৩টি গ্রাম থেকে দরিদ্র পরিবারের কাছে থেকে ভোটার আইডি কার্ড, ছবি সংগ্রহ করে তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। সেই তালিকা অনুযায়ী প্রত্যেক জনকে ছবি সম্বলিত কার্ড দেওয়া দেওয়া হয়েছে। সেই কার্ড নিয়ে ২১ মার্চ থেকে চারটি ডিলারের মাধ্যমে ১৬টি স্থান নির্ধারণ করে এই টিসিবি’র পণ্য দেওয়া হবে।

বাগমারা
ভবানীগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, প্রেস ব্রিফিংএ বাগমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারুক সুফিয়ান ১৬টি ইউনিয়ন ও দুই পৌরসভায় টিসিবির পণ্য বিক্রির ক্যালেন্ডার প্রকাশ করেন। স্বচ্ছতার ভিত্তিতে পণ্য বিক্রির জন্য পরিবার পরিচিতি কার্ডের মাধ্যমে এবং ট্যাগ টিম এর তদারকির ভিত্তিতে নির্ধারিত ডিলারদের মাধ্যমে বিতরন করা হবে বলে জানানো হয়। ইউনিয়ন পরিষদ এবং পৌরসভায় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে তালিকা প্রস্তুত করে এ পর্যায়ে ১৯ হাজার ছয়শত সাতাশটি পরিবারের মাঝে পণ্য বিক্রয় করা হবে।

ধামইরহাট
ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি জানান, ধামইরহাটে ডিলারের মাধ্যমে নিম্ন আয়ের মানুষের নিকট টিসিবিপণ্য বিক্রয়ের জন্য সংবাদ সম্মেলন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার গনপতি রায়। এসময় তিনি জানান, ধামইরহাট উপজেলায় ১০ হাজার ৭৩৪ জন ভোক্তাদের মাঝে ১২টি পয়েন্টে এসব খাদ্যপন্য বিক্রয় করা হবে। ২০ মার্চ বেলা ১১ টায় উমার ইউনিয়নে বিতরণের মাধ্যমে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হবে।

নিয়ামতপুর
নিয়ামতপুর (নওগা)ঁ প্রতিনিধি জানান, নিয়ামতপুরে টিসিবির পণ্য বিক্রি সংক্রান্ত বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন ইউএনও আব্দুল্লাহ আল মামুন। তিনি বলেন, আজ থেকে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু। নিয়ামতপুর উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে মোট ২৭ হাজার ৭’শ ৭৬ জন উপকারভোগী এই টিসিবির পন্য ন্যয্যমূল্যে ক্রয় করতে পারবে।

পোরশা
পোরশা (নওগাঁ) প্রতিনিধি জানান, পোরশা উপজেলা প্রশাসন সংবাদ সম্মেলন করেছেন। উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করেন উপজেলা টিসিবি পণ্য বিক্রয় কার্যক্রম পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) জাকির হোসেন। তিনি বলেন, উপজেলায় ছয়টি ইউনিয়নে ১৩ হাজার ১৩৪ জন তালিকাভুক্ত উপকারভোগীর কাছে টিসিবি পণ্য বিক্রয় করা হবে। পণ্যগুলি প্রতিটি ইউনয়ন এলাকায় কয়েকটি কেন্দ্রে বিতরণ করা হবে বলে তিনি জানান। এসময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজীবুল ইসলাম, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা দোস্তদার হোসেনসহ সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মান্দা
মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি জানান, মান্দায় ‘ফ্যামিলি কার্ড’ কর্মসূচির আওতায় টিসিবির পণ্য ভোজ্যতেল, ডাল ও চিনি কিনতে পারবেন ভোক্তারা। সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু বাক্কার সিদ্দিক। আজ সকাল ১০ টায় উপজেলার ভালাইন ও পরানপুর ইউনিয়নের চারটি কেন্দ্রে টিসিবির এসব পণ্য বিক্রি করা হবে। পর্যায়ক্রমে উপজেলার অন্য ইউনিয়নেও কার্ডধারীদের মাঝে বিক্রি করা হবে এসব পণ্য । সংবাদ সম্মেলনে ইউএনও বলেন, কারোনাকালিন পরিস্থিতিতে মান্দা উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর নগদ অর্থ সহায়তা পাওয়া ১০ হাজার ৭০০ জন সবাই পেয়েছেন ফ্যামিলি কার্ড। এর সঙ্গে নতুন ভাবে যুক্ত হয়েছে আরও ১১ হাজার ১০৮ পরিবার।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ
চাঁপাইনবাবগঞ্জ ব্যুরো জানায়, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ৪৫টি ইউনিয়ন ও ৪ পৌরসভায় ১ম ধাপে ১ লাখ ৩০ হাজার ৩২০ জন নিম্নআয়ের মানুষ এসব পণ্য কেনার সুযোগ পাবে। আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত বিক্রয় কার্যক্রম চলবে। ২১০ টি স্থানে ৩১ জন ডিলারের মাধ্যমে ২ কেজি ডাল, ২ কেজি চিনি ও ২ কেজি করে তেল বিক্রি করা হবে। এ বিয়য়ে শুক্রবার বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খান এক প্রেসব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানান।
জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত প্রেসব্রিফিং সঞ্চালনা করেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দেবেন্দ্র নাথ উরাঁও। এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম, সহকারী কমিশনার আনিসুর রহমান, সহকারী কমিশনার রওশনা জাহান ও তৌফিক আজিজসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পত্নীতলা
পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি জানান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার লিটন সরকার প্রেস ব্রিফিংএ জানান, উপজেলায় মোট ১৫ হাজার ৬৬ টি ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে এই পণ্য কিনতে পারবেন। এই সময় প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আবু সোয়েব খান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খাদিজাতুল কোবরা মুক্তা ও সংবাদ কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

নওগাঁ
নওগাঁ প্রতিনিধি জানান, নওগাঁ জেলায় ১ লাখ ৭৫ হাজার ৫৮৪ টি পরিবারের মাঝে ‘ফ্যামিলি কার্ড’ এর মাধ্যমে ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) থেকে পণ্য বিক্রি করা হবে। জেলা প্রশাসনের হলরুমে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদি হাসান। রোববার থেকে শুরু হবে টিসিবি পণ্য বিক্রি। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়- জেলার তিনটি পৌরসভাসহ ১১টি উপজেলায় ৩১ জন টিসিবি ডিলারের মাধ্যমে দুই ধাপে ১ লাখ ৭৫ হাজার ৫৮৪ টি পরিবার টিসিবি পণ্য পাবেন। আজ থেকে শুরু হবে ভর্তুকি মূল্যে টিসিবি পণ্য বিক্রি। চলবে ৩১ মার্চ পর্যন্ত। একদিনে একজন ডিলারের মাধ্যমে ৯০০টি ফ্যামিলি কার্ডধারী এসব পণ্য পাবেন।

তিনি বলেন, যেহেতু কার্ডের মাধ্যমে টিসিবি পণ্য বিক্রি হবে তাই একই ব্যক্তি একাধিকবার পণ্য নেওয়ার সুযোগ নাই। এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মাদ ইব্রাহীম, সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সাবরিনা আক্তারসহ জেলার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মী উপস্থিত ছিলেন।