ঢাকা | জুলাই ২২, ২০২৪ - ১১:২৭ অপরাহ্ন

হড়গ্রাম-রানীদিঘী এলাকায় রাস্তার কাজের ধীরগতিতে জনদুর্ভোগ

  • আপডেট: Thursday, March 17, 2022 - 6:06 pm

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী নগরীর অধিকাংশ এলাকায় কচ্ছপ গতিতে হওয়া রাস্তার কাজে জনদুর্ভোগ চরমে উঠেছে। সড়কের উন্নয়ন কাজে ধীরগতি, বিকল্প যোগাযোগের ব্যবস্থা না করা এবং সড়কের দু’পাশ বেদখলের কারণে দিনভর সীমাহীন দুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।

জানা গেছে, নগরীর অধিকাংশ পাড়া-মহল্লার রাস্তাগুলো সংস্কারের জন্য ভেঙে ফেলা হয়েছে। এতে মানুষের সমস্যার শেষ নেই। বিশেষ করে বেহাল দশা নগরীর ২ নম্বর ওয়ার্ড়ের হড়গ্রাম নতুনপাড়া রানীদিঘীর ওলিগলি রাস্তার। এ এলাকার অধিকাংশ রাস্তার কার্পের্টিং তুলে ফেলায় রাস্তাগুলো চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

রানীদিঘীর পশ্চিম, উত্তর ও দক্ষিণের রাস্তার কার্পেটিং কয়েক মাস আগেই উঠিয়ে ফেলা হয়েছে। অনেক স্থানে ওয়াসার পানি সরবরাহের জন্য পাইপ বসানো হচ্ছে। কয়েক দিন যেতে না যেতেই খোড়াখুড়ির পাশাপাশি বিভিন্ন বাসা বাড়ির পানির ড্রেনের সাথে সংযোগ দেয়ার জন্য রাস্তা ভাঙ্গা হচ্ছে। ফলে রাস্তাগুলো চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

হড়গ্রাম এলাকার বাসিন্দা হায়দার আলী বলেন, প্রায় চার থেকে পাঁচ মাস আগে রাস্তার কাজ শুরু হয়েছে। এর পরও কাজ শেষ হচ্ছে না। দীর্ঘদিন ধরে রাস্তাগুলো ভাঙা থাকায় অসুস্থ মানুষের পক্ষে চলাচল অসম্ভব। একই সমস্যা স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থী ও কর্মস্থলে যাওয়া মানুষদেরও। এলাকার রাস্তার উন্নয়ন হচ্ছে এর জন্য আমরা আনন্দিন। কিন্তু মাসের পরে মাস কোন কাজ না হওয়া- আবার হলেও অল্প অল্প, এই বিষয়গুলো দুঃখজনক।

একই অবস্থা নগরীর রানীদিঘী রাস্তারও। এ নিয়ে এলাকার বিসমিল্লাহ ফার্মেসির মালিক ডা: শহিদুল ইসলাম বলেন, রানীদিঘীর পশ্চিমের রাস্তাটি ভাঙাচোরা থাকার কারণে এ এলাকায় এখন কোন ভাড়াটিয়া আসেনা। এতে এলাকায় যারা ভাড়া দেন তারা পড়েছেন বিপদে। এভাবে চললে বড় ধরনের ক্ষতির মুখে পড়ার সম্ভাবনা আছে। স্থানীয় এলাকাবাসী অবিলম্বে সকল রাস্তার চলমান কাজ দ্রুত শেষ করার দাবি জানিয়েছেন।

এ নিয়ে জানতে চাইলে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম বলেন, রাস্তার কাজের জন্য এলাকাবাসীর যে দুর্ভোগ সেটি অস্বীকারের কোন সুযোগ নেই। কাজগুলো অতি দ্রুত সময়ে শেষ করতে ঠিকাদারের ওপর চাপ সৃষ্টি করা হবে।

এসবি/জেআর