ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৬, ২০২৪ - ১:৩৮ পূর্বাহ্ন

মাদ্রাসার খাবার খেয়ে ছাত্রসহ ১৬ জন হাসপাতালে

  • আপডেট: Wednesday, March 16, 2022 - 11:55 am

অনলাইন ডেস্ক: পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে একটি কওমী মাদ্রাসার খাবার খেয়ে ১৪ জন ছাত্রসহ অধ্যক্ষ ও বাবুর্চী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। খাদ্যে বিষক্রিয়ার (ফুড পয়জনিং) কারণে এই ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা চিকিৎসকদের। বুধবার সকালে হাসপাতালে তাদের চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হয়। তবে তাদের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কামুক্ত বলে জানান চিকিৎসক।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দেবীগঞ্জ উপজেলার আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া দারুল উলুম মজাহেরুল ইসলাম কওমী মাদ্রাসা ও এতিম খানায় এই ঘটনা ঘটে। অসুস্থরা সবাই দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছেন।

মাদ্রাসা ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বিকেলে ওই মাদ্রাসার অধ্যক্ষ, বাবুর্চীসহ ছাত্রদের পেট ব্যাথা ও বমি গুরু হয়। তারা অসুস্থ হয়ে পড়েছে এমন খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তাদের দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। দুপুরের খবারের পর বিকেলে এমন সমস্যা শুরু হয়।

মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মো. আসাদুজ্জামান বলেন, ‘প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার দুপুরেও মাদ্রাসার বাবুর্চী জামিলা বেগম রান্না করেন। আড়াইটার দিকে আমরা মসুরডাল ও আলু একসঙ্গে রান্না করা ডাল দিয়ে ভাত খাই। দুই আড়াই ঘণ্টা পর প্রায় সকলের পেটে শুরু হয়। মাথাও ঘোরাচ্ছিল। এরপর কয়েকবার বমি হয়। সন্ধ্যার আগে হাসপাতালে নেওয়া হয়।’

দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হাসিনুর রহমান বলেন, ‘ওই মাদ্রাসার শিক্ষক ছাত্রসহ ১৬ জন বমি, পেটব্যথা ও দুর্বলতা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। অতিরিক্ত বমি কারণে অনেকে দুর্বল হয়ে পড়েন। তাদের চিকিৎসাসেবা দেওয়া হচ্ছে। বুধবার সকাল থেকে তাদের শরীরের অবস্থা উন্নতির দিকে। ফুড পয়জনিং এর কারণে এমনটা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।’

সোনালী/জেআর