ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২২, ২০২৪ - ৫:৪৭ পূর্বাহ্ন

পেঁয়াজের দাম আরও কমবে বলছেন আমদানিকারকরা

  • আপডেট: Sunday, March 13, 2022 - 7:24 pm

 

অনলাইন ডেস্ক: দেশে চাল, তেল, ডালসহ প্রায় সব ধরনের নিত্যপণ্যের দাম নিয়ে যখন অস্থিরতা চলছে, তখন পেঁয়াজের বিপরীতমুখী যাত্রা চলছে। গত তিন চার দিনে পেঁয়াজের কেজি ৭০ টাকা থেকে নেমেছে প্রায় ২৫ টাকা। আজ বাজারে প্রতিকেজি পেঁয়াজ ৪৫ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে। তাতে স্বস্তি ক্রেতাদের মধ্যে। তারা আশা করছেন, রোজার আগে অন্যান্য পণ্যের দামও এভাবে কমে আসবে।

পেঁয়াজের দাম কমার পেছনে দেশে উৎপাদিত নতুন পেঁয়াজের পাশাপাশি বাজারে আসছে আমদানি করা পেঁয়াজ। আমদানিকারকরা বলছেন, ভারত থেকে ইতিমধ্যে যথেষ্ট পরিমাণে পেঁয়াজ এসেছে। আরও আসছে। দাম কমে ২০-২৫ টাকায় নামতে পারে পেঁয়াজের কেজি।

গত ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ দিক থেকে বাজারে পেঁয়াজের দাম বাড়তে থাকে। ৪০-৪৫ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া পেঁয়াজের দাম বেড়ে ৭০ টাকায় উঠে যায়। তখন ব্যবসায়ীরা বলছিলেন, বাজারে সরবরাহ কম।

পেঁয়াজের দাম হঠাৎ বেড়ে আবার হুট করে কমে যাওয়া সম্পর্কে জানতে চাইলে ব্যবসায়ীরা দাবি করেন, দেশে প্রচুর পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। এ ছাড়া বাজারে হালি পেঁয়াজ উঠছে। এ কারণে পেঁয়াজের দাম কমেছে। সামনে দাম আরও কমবে বলে আশা করছেন তারা।

হিলিতে পেঁয়াজ আমদানিকারক শহিদুল ইসলাম বলেন, রমজান সামনে রেখে দেশে প্রতি বছরই পেঁয়াজের সংকট দেখা দেয়। বেশি লাভের আশায় অনেক ব্যবসায়ী পেঁয়াজ মজুদ করে রাখেন। তাই এ বছর পেঁয়াজ আমদানি বাড়ানো হয়েছে।

হিলি আমদানি ও রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন-উর-রশিদ বলেন, ভারত থেকে অনেক পেঁয়াজ দেশে ঢুকেছে। কয়েক দিনের মধ্যে আরও আমদানি হবে। আমদানি আরও বাড়াতে এলসির পরিমাণও বাড়ানো হয়েছে। আশা করা যায় খুব দ্রুতই আরও কমে যাবে পেঁয়াজের দাম।

জানা যায়, হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ৩০০ থেকে ৩৫০ পেঁয়াজের ট্রাক দেশে ঢোকার পথে আছে। এগুলো দেশে এলে পেঁয়াজের দাম সারা দেশে ২০-২৫ টাকায় চলে আসবে বলে ব্যবসায়ীরা ধারণা করছেন।