ঢাকা | জুলাই ১৮, ২০২৪ - ১২:৩২ পূর্বাহ্ন

এইচএসসির পুনঃনিরীক্ষার ফল প্রকাশ

  • আপডেট: Sunday, March 13, 2022 - 3:48 pm

অনলাইন ডেস্ক: চলতি বছরের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার খাতা পুনঃনিরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশিত পুনঃনিরীক্ষার ফলে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডে ১৫৬ জন শিক্ষার্থীর ফল পরিবর্তন হয়েছে। রোববার ঢাকা শিক্ষাবোর্ড এ তথ্য জানিয়েছে।

ঢাকা শিক্ষাবোর্ড জানায়, ১৫৬ জনের মধ্যে ফেল থেকে পাস করেছেন ৩৮ জন। আর নতুন করে জিপিএ-৫ পেয়েছেন ২৬ জন।

এর আগে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ফলাফলে সন্তুষ্ট না হয়ে বোর্ডে আবেদন জমা পড়ে প্রায় ৩০ হাজার। রোববার ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান (রুটিন দায়িত্ব) তপন কুমার সরকার বলেন, পরীক্ষার্থীদের মুঠোফোনে ও শিক্ষাবোর্ডের ওয়েবসাইটে ঢুকে পরিবর্তিত ফল দেখা যাবে।

জানা যায়, ৩০ হাজার আবেদনকারীর মধ্যে শুধুমাত্র ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের ২০ হাজার ৮০০ জন শিক্ষার্থী ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করেন। এর মধ্যে অনেক পরীক্ষার্থী এক বিষয়ে, আবার অনেকে একাধিক বিষয়ে পুনঃনিরীক্ষার আবেদন।

তবে ঢাকা শিক্ষাবোর্ড সূত্র জানায়, রসায়ন বিষয়ে এককভাবে বেশি পুনঃনিরীক্ষার আবেদন জমা পড়ে, যার সংখ্যা ৩ হাজারের বেশি। গত ২০ ফেব্রুয়ারি আবেদন গ্রহণ শেষ হয়।

শিক্ষা বোর্ডের সংশ্লিষ্টরা জানান, পুনঃনিরীক্ষার জন্য যেসব শিক্ষার্থী যে বিষয়ে আবেদন করবে তার উত্তরপত্রের প্রাপ্ত নম্বর ঠিকমতো যোগ করা হয়েছে কি না তা পুনরায় মূল্যায়ন করা হয়ে থাকে। নতুন করে উত্তরপত্র মূল্যায়ন করা হয় না। এতে করেও কারো কারো ফল পরিবর্তন হয়ে থাকে।

এবার এইচএসসি-সমমান পরীক্ষায় পাস করেছে ১৩ লাখ ৭১ হাজার ৬৮১ জন। পাসের হার ৯৫ দশমিক ২৬ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৮৯ হাজার ১৬৯ জন। এর হার শতকরা ১৩ দশমিক ৭৯ শতাংশ।

করোনার কারণে নির্ধারিত সময়ের প্রায় আট মাস পর গত বছরের ২ ডিসেম্বর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হয়েছিল। এরপর সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে নেওয়া হয় ২০২১ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা।

বিভাগভিত্তিক তিনটি নৈর্বাচনিক বিষয়ের ছয়টি পত্রে এবারের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ফলপ্রকাশের পর ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে এইচএসসি ও সমমানের পুনঃনিরীক্ষার আবেদন শুরু হয়, যা শেষ হয় ২০ ফেব্রুয়ারি।

সোনালী/জেআর