ঢাকা | জুলাই ১৯, ২০২৪ - ১০:১৩ অপরাহ্ন

ইমরান খানের গদিতে টান, অনাস্থা প্রস্তাব জমা বিরোধীদের

  • আপডেট: Wednesday, March 9, 2022 - 11:10 am

অনলাইন ডেস্ক: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের গদিতে ফের টান পড়েছে। মঙ্গলবার দেশটির বিরোধীরা তার বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব জমা দিয়েছেন। আগামী ১৪ দিনের মধ্যে এ নিয়ে পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদে ভোটাভুটি হবে। এর আগে ইমরান খান নিজেই আস্থা ভোটের আয়োজন করেছিলেন। সেবার তিনি ছয় ভোটে উতরে গেলেও এবার তার পরিণতি কী হয়, সেটিই দেখার বিষয়। খবর দ্য ডনের।

পাকিস্তানের বিরোধী শিবিরের আলোচিত সাংসদ রানা সানাউল্লাহ, আয়াজ সাদিক, সাজিয়া মারি, মরিয়ম আওরঙ্গজেবসহ একটি প্রতিনিধি দল দেশটির পার্লামেন্ট ভবনে সংসদীয় সচিবালয়ে অনাস্থা প্রস্তাবটি জমা দেন। স্পিকার আসাদ কাউসার তার কার্যালয়ে না থাকায় বিধি অনুযায়ী সংসদীয় সচিবালয়ে প্রস্তাবটি জমা দেন তারা। পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের মুখপাত্র মরিয়ম আওরঙ্গজেব বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পাকিস্তান পিপলস পার্টির অন্যতম নেতা নাভিদ কামার জানিয়েছেন, প্রস্তাবটিতে জাতীয় পরিষদের ১০০ সদস্যের স্বাক্ষর রয়েছে। দেশটির জাতীয় পরিষদের নিয়ম অনুযায়ী, এ ধরনের প্রস্তাব আনার জন্য কমপক্ষে ৬৮ আইনপ্রণেতার স্বাক্ষর দরকার হয়। আর প্রস্তাব পাসের জন্য ১৭২ জনের সমর্থন, অর্থাৎ ভোট প্রয়োজন হয়।

পাকিস্তানের সংবিধান অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনার ১৪ দিনের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে পার্লামেন্টে বিশেষ অধিবেশন আহ্বান করবেন। তবে প্রস্তুতির জন্য তিন থেকে সাত দিন সময় নিতে পারবেন স্পিকার।

ইমরান খান বলেছেন, অনাস্থা প্রস্তাব আনায় তার সরকার আরও শক্তিশালী হবে। কারণ, সরকার সমর্থক সব সাংসদ মিলে সংখ্যাটি প্রায় ১৮০। আর বিরোধী শিবিরে আছে ১৬০টির বেশি। এখন তাকে ক্ষমতা থেকে নামাতে হলে ইমরানের দল থেকে সাংসদ ছুটিয়ে আনতে হবে। এ বিষয়ে বিরোধীরা বেশ সোচ্চার।

সোনালী/জেআর