ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২১, ২০২৪ - ২:২৭ অপরাহ্ন

যুদ্ধের দশম দিন: ইউক্রেনে রুশ হামলার সর্বশেষ পরিস্থিতি

  • আপডেট: Saturday, March 5, 2022 - 12:30 pm

অনলাইন ডেস্ক: ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের দোনবাস অঞ্চলে সামরিক অভিযানের নির্দেশ দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। রুশ সেনারা ইউক্রেনে ঢুকে পড়ার পর প্রতিরোধ গড়ে তুলে ইউক্রেনের সেনাবাহিনী ও নাগরিকরা।

যুদ্ধের দশম দিনে জেনে নিন সর্বশেষ পরিস্থিতি

** এখন পর্যন্ত ইউক্রেনের কী পরিমাণ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন তা পরিষ্কার নয়। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা বলছে, যুদ্ধের কারণে ১০ লাখের বেশি ইউক্রেনের নাগরিক দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন।

** হামলা শুরুর পর থেকে রাশিয়ার দখল করা প্রথম শহর খেরসন। এ শহর নিপার নদীর তীরে অবস্থিত, যে নদী মিশেছে কৃষ্ণ সাগরে।

** রাশিয়া ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ ও দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাচ্ছে। কিয়েভের বাইরে অবস্থান করছে রুশ সেনাদের বিশাল বহর।

** দক্ষিণাঞ্চলের বন্দর মারিওপোল এখনও অবরুদ্ধ অবস্থায় রয়েছে। এদিকে রুশ সেনারা অপর বন্দর ওডেসার দিকে এগোচ্ছে। এ দুটি বন্দর যদি রাশিয়া দখল নিতে পারে তবে ইউক্রেন আর সমুদ্রে প্রবেশ করতে পারবে না।

** শুক্রবার রাশিয়ার সেনারা জাপোরিঝঝিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র দখলে নিয়েছে। যে পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র ইউরোপে বৃহত্তম।

** চেরনোবিল পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রও দখলে নিয়েছে রাশিয়া।

** ইউক্রেন ‘নো ফ্লাই জোন’ কার্যকরের আবেদন জানালেও তা প্রত্যাখ্যান করেছে সামরিক জোট ন্যাটো। এর তীব্র সমালোচনা করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

** যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন রাশিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাংক, দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং তার ঘনিষ্ঠদের ওপর নানা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। নিষেধাজ্ঞার মধ্যে দাম পড়ে গেছে রুবলের। এতে দেশটির বাণিজ্য, বিনিয়োগ ও পর্যটন খাত ক্ষতির মুখে পড়েছে।

** স্যামসাং, এয়ারবিএনবি ও কার্টিয়ার রাশিয়ায় পণ্য রপ্তানি বা কার্যক্রম স্থগিত করেছে।

সোনালী/জেআর