ঢাকা | জুলাই ১৭, ২০২৪ - ১:১১ পূর্বাহ্ন

বাগমারায় গ্রেপ্তার আতংকে চারটি গ্রাম পুরুষ শূন্য

  • আপডেট: Thursday, March 3, 2022 - 10:47 pm

স্টাফ রিপোর্টার: বাগমারায় কৃষকের জমিতে পাওয়ারপ্ল্যান্ট (বিদ্যুৎ কেন্দ্র) স্থাপনকে কেন্দ্র করে কৃষক ও নির্মাণকারীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার আতংকে মাড়িয়া ইউনিয়নের সূর্যপাড়া, পিদ্দপাড়া, গোয়ালপাড়া ও অনন্তপাড়া গ্রাম এখন পুরুষ শূন্য হয়ে পড়েছে।

বুধবার সন্ধ্যার পর থেকে সারা রাতব্যাপী দফায় দফায় পুলিশ আসামিদের ধরতে ওই চারটি গ্রামে সাঁড়াশি অভিযান চালায়। এই পরিস্থিতিতে পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে ওই চারটি গ্রামের কৃষকদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষও এলাকা ছেড়ে পালিয়ে অন্যত্র গিয়ে আত্নগোপন করেছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সরজমিনে ওই চারটি গ্রাম ঘুরে কোনো পুরুষ মানুষ দেখা যায়নি। সূর্যপাড়া গ্রামের কৃষক আব্দুর রহিম বক্সের স্ত্রী মাজেদা বিবি জানান, গতকাল গভীর রাতে তার বাড়িতে তিনবার পুলিশ এসেছে। কিন্তু ভয়ে তিনি দরজা খোলেননি। একপর্যায়ে পুলিশেরা দরজা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করেন। কিন্তু স্বামী ও ছেলেরা কেউ বাড়িতে না থাকায় কাউকেই পুলিশ ধরতে পারেনি।

বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাক আহম্মেদ বলেন, পাওয়ারপ্ল্যান্ট (বিদ্যুৎ কেন্দ্র) স্থাপন নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় সংসদ সদস্যের ভাই মাড়িয়া ইউপির চেয়ারম্যান রেজাউল হক বাদী হয়ে ৩৬ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অর্ধশতাধিক অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে বুধবার থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলায় আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।