ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৬, ২০২৪ - ৪:৫৩ পূর্বাহ্ন

নামাজরত যুবককে কুপিয়ে পালাচ্ছিলেন বিদেশে, অতঃপর…

  • আপডেট: Wednesday, March 2, 2022 - 7:56 am

অনলাইন ডেস্ক: শবে মেরাজের সন্ধ্যায় মসজিদের ভেতর ঢুকে নামাজে সেজদারত মুসল্লীকে কুপিয়ে জখম করা হয়। এ ঘটনায় করা মামলার প্রধান আসামি দেশ ছেড়ে পালানোর চেষ্টা করেন। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ (এপিবিএন)। গ্রেফতার ব্যক্তির নাম মো. রফিক (৩৫)। তিনি কুয়েত প্রবাসী।

মঙ্গলবার (১ মার্চ) রাতে এপিবিএনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মোহাম্মদ জিয়াউল হক জিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, কুমিল্লার বুড়িচংয়ে ২৮ ফেব্রুয়ারি শবে মেরাজের সন্ধ্যায় সোলেমান (২৮) নামে এক যুবকের ওপর বুড়িচং উপজেলার নাজিরাবাজার বাইতুর রহমান জামে মসজিদে নামাজরত অবস্থায় একাধিক ব্যক্তি হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো অস্ত্র নিয়ে নৃশংস হামলা চালায়। গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে কুমিল্লা কুচাইতুলি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত আপন দুই ভাই, মো. রফিক ও মো. সুমনসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করে বুড়িচং থানায় আজ (মঙ্গলবার) মামলা হয়।

ঘটনার পরই প্রধান আসামি কুয়েত প্রবাসী রফিক কুয়েতে পালানোর চেষ্টায় ঢাকায় আসেন। এরপর বিকেলে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে কুয়েতে ফেরত যাওয়ার পরিকল্পনা করেন। কিন্তু আগে থেকেই সতর্ক অবস্থায় থাকা এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশের গোয়েন্দা দল বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের চেকইন কাউন্টার থেকে তাকে গ্রেফতার করে। পরবর্তীতে কুমিল্লা জেলা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে অভিযুক্ত রফিকের পরিচয় নিশ্চিত হয় এয়ারপোর্ট পুলিশ।

অভিযুক্তের নামে থাকা মামলায় রফিককে কুমিল্লা জেলা পুলিশের হাতে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এছাড়া মামলার দ্বিতীয় আসামি সুমন বর্তমানে দেশে অবস্থান করা একজন কুয়েত প্রবাসী। তাকেও গ্রেফতারে সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে।

সোনালী/জেআর