ঢাকা | জুলাই ১৮, ২০২৪ - ৫:৩৪ অপরাহ্ন

রূপপুরে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ শেষের আশা

  • আপডেট: Tuesday, March 1, 2022 - 2:00 pm

অনলাইন ডেস্ক: রাশিয়া-ইউক্রেন সংকটের বর্তমান পরিস্থিতিতে রাশিয়ার রাষ্ট্রায়ত্ব পরমাণু সংস্থা রোসাটম জানিয়েছে, বাংলাদেশে রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মাণকাজ নির্ধারিত সময়ে সম্পন্ন করতে কোনো ব্যাঘাত ঘটার আশঙ্কা নেই।

ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের কারণে রাশিয়ার ওপর যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা বেশ কয়েকটি দেশ নিষেধাজ্ঞা দেওয়ায় রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে মস্কোর অর্থায়ন নিয়ে আশঙ্কা সৃষ্টি হয়। এমন আশঙ্কার মধ্যেই মঙ্গলবার এক বার্তায় এ তথ্য জানাল রাশিয়ান সংস্থাটি।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রাশিয়ার কিছু ব্যাংকের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশের পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের অর্থায়নে কোনো প্রভাব পড়বে কি না, সেটি যাচাই করে দেখবে তারা। তাদের দাবি, প্রকল্পটির অর্থায়নে নেতিবাচক কোনো প্রভাব পড়বে না।

তবে অর্থনীতিবিদরা বাংলাদেশের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় এই প্রকল্পে নেতিবাচক প্রভাবের আশঙ্কা করছেন। তারা বলেছেন, প্রকল্পটিতে ঋণ হিসেবে অর্থের বড় অংশের যোগান দিচ্ছে রাশিয়ার যে রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ভিবি ব্যাংক, সেই ব্যাংকের ওপর যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা দেওয়ায় বিদ্যুৎ প্রকল্পটির অর্থায়ন নিয়ে আশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যাবে না।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জিয়াউল হাসান বলেন, পারমাণবিক প্রকল্পের কাজে এখনও কোনো সমস্যা তারা দেখছেন না। তিনি বলেন, ‘প্রকল্পের কাজ যা হয়, কোনো একটি কাজ শেষ হলে বা টার্গেট পুরো হলে, তখন এখান থেকে আমাদের প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট থেকে সার্টিফিকেট দেওয়া হয়। এর ভিত্তিতে যে প্রতিষ্ঠান সেই কাজটি করে, সে প্রতিষ্ঠানকে রাশিয়ার ফেডারেশনের পক্ষে ব্যাংকগুলো থেকে পেমেন্ট দেওয়া হয়।’

জিয়াউল হাসান বলেন, ‘প্রকল্পে এখন রাশিয়া, ইউক্রেন এবং কাজাখস্তানের চার থেকে ছয় হাজার লোক কাজ করছে। আর আমাদের দেশীয় শ্রমিকসহ মোট ২৬ হাজারের মতো লোকবল রয়েছে। তাদের পেমেন্টেরতো কোনো সমস্যা হয়নি।’

সিনিয়র সচিব বলেন, প্রকল্পে কাজ পুরোদমে চলছে এবং ‘এখন পর্যন্ত কোনো সমস্যার খবর আমরা পাইনি।’