এফএনএস: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ রাব্বীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেছেন, আবরার হত্যা অত্যনত্ম দুঃখজনক ও মর্মানিত্মক। জড়িতদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে এবং তাদের উপযুক্ত শাসিত্ম দেওয়া হবে। ন্যক্কারজনক এ হত্যাকা-ের সঙ্গে জড়িতরা ছাড় পাবে না। গতকাল মঙ্গলবার সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন আনিসুল হক। আইনমন্ত্রী বলেন, আমরা আইনের শাসনে বিশ্বাসী। আসামিদের অনেকেই ধরা পড়েছে। বাকিরাও ধরা পড়বে। এরা কেউ আইনের হাত থেকে রেহাই পাবে না। বিএনপি নেতাদের সমালোচনা করে আইনমন্ত্রী বলেন, আবরার হত্যাকা- নিয়ে বিএনপি নেতারা দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্য দিচ্ছেন। তারা তাদের আমলের কথা ভুলে গেছেন। তাদের সময়ে একটি হত্যাকা-েরও সুষ্ঠু বিচার হয়নি। আমরা প্রতিটি ঘটনার সুষ্ঠু তদনত্ম ও ন্যায় বিচার নিশ্চিত করেছি। আনিসুল হক বলেন, দায়িত্ব জ্ঞানহীন নেতারা দেশের সব দুর্ঘটনায় রাজনীতির উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য বক্তব্য দেন। এখন ওনারা ( বিএনপি) যে বেসুরা গান গাইছেন এতে জনগণ কান দিবে না। আইনমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ এ দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছে। জননেত্রী শেখ হাসিনা এ দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন বরং এ দেশে আইনের শাসন ওনারা নষ্ট করেছেন। সুতরাং ওনাদের (বিএনপি) আগে শুধরাতে হবে। এ সময় উপসি’ত ছিলেন আইন সচিব গোলাম সারোয়ার, আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক অধ্যক্ষ জয়নাল আবেদীন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম ভূঁইয়া, আখাউড়া পৌরসভার মেয়র তাকজিল খলিফা, কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদুল কাউছার ভূঁইয়া জীবন প্রমূখ।