এফএনএস: রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলা মামলায় দুই ম্যাজিস্ট্রেট সাক্ষ্য দিয়েছেন। এ নিয়ে মামলাটির ২১১ সাক্ষীর মধ্যে ১১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল সোমবার ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মুজিবুর রহমানের আদালতে সাক্ষ্য দেন ঢাকার তৎকালীন মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আহসান হাবীব ও গোলাম নবী।
আদালত একইসঙ্গে পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামি ১৩ অক্টোবর দিন ধার্য করেন। মামলার আসামিরা হলেন- জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব গান্ধী, রাকিবুল হাসান রিগান, রাশেদুল ইসলাম ওরফে র‌্যাশ, সোহেল মাহফুজ, মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান, হাদিসুর রহমান সাগর, শরিফুল ইসলাম ও মামুনুর রশিদ।
এ ছাড়া বিভিন্ন অভিযানে ১৩ জঙ্গি নিহত হওয়ায় তাদের অব্যাহতির সুপারিশ করেন তদন্ত কর্মকর্তা। পরে মামলা থেকে তাদের অব্যাহতি দেওয়া হয়।
২০১৬ সালের ১ জুলাই হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালিয়ে ১৭ বিদেশিসহ ২০ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশের ওপর গ্রেনেড হামলাও চালান জঙ্গিরা। এতে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি) রবিউল ইসলাম ও বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাউদ্দিন নিহত হন। পরে কমান্ডো অভিযানে পাঁচ জঙ্গি নিহত হয়। এরপর ৪ জুলাই গুলশান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রিপন কুমার দাস বাদী হয়ে মামলা করেন।
২০১৮ সালের ২৩ জুলাই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের পরিদর্শক হুমায়ূন কবির আদালতে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।
একই বছর ৮ আগস্ট অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন আদালত। এরপর ২৬ নভেম্বর আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে ৪ ডিসেম্বর থেকে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়।