জয়পুরহাট প্রতিনিধি : খেতে বসে ভাতের থালায় চুল পাওয়ায় নিজ স্ত্রীর মাথার চুল কেটে ন্যাড়া করে দিয়েছে এক স্বামী।
ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার সকালে জয়পুরহাট সদর উপজেলার শালগ্রাম নামক গ্রামে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ অভিযুক্ত বাবলু মিয়াকে আটক ও নির্যাতিত স্ত্রী আর্জিনা বেগমকে উদ্ধার করে। পরে নির্যাতিত স্ত্রী’র বাবা বাদী হয়ে বাবলু মিয়ার বিরুদ্ধে জয়পুরহাট সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, বাবলু দীর্ঘদিন যাবৎ প্রায়ই আরজিনা বেগমকে নির্যাতন করে আসছিল। সোমবার সকালে বাবলু খাওয়ার সময় ভাতের প্লেটে চুল দেখে আরজিনাকে মারধর করার এক পর্যায়ে আরজিনার হাত-পা বেঁধে তার মাথা ন্যাড়া করে দেয়। খবর পেয়ে গ্রাম পুলিশ ও স্থানীয়দের সহায়তায় পুলিশ বাবলুকে আটক করে ও আর্জিনাকে উদ্ধার করে। আটক বাবলুকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে আরজিনার বাবা সদর উপজেলার চক ভারুনিয়া গ্রামের বেলাল সরদার বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। আরজিনা এবং বাবলুর বিয়ে হয় ৭ বছর অগে। তাদের কোন সন্তান নেই। বাবলু এর আগেও দুটি বিয়ে করে বলে পুলিশ জানিয়েছে।