এফএনএস: আজ সোমবার বিশ্ব বসতি দিবস। সকলের জন্য আবাসন নিশ্চিতকরণসহ বাসযোগ্য ও নিরাপদ আবাসস্থলের বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ১৯৮৫ সালে জাতিসংঘ বিশ্ব বসতি দিবস উদযাপনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। পরবর্তীতে ১৯৮৬ সাল থেকে সারা বিশ্বে অক্টোবর মাসের প্রথম সোমবার বিশ্ব বসতি দিবস উদযাপিত হয়ে আসছে।
এ বছরও বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালিত হচ্ছে। বিশ্ব বসতি দিবসের এ বছরের প্রতিপাদ্য- ‘বর্জ্যকে সম্পদে পরিণত করতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার।’
গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে গতকাল জানানো হয়, রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ আজ বিকাল ৪টায় ঢাকার শেরেবাংলা নগরের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বিশ্ব বসতি দিবস ২০১৯ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বলে আশা করা হচ্ছে।
একই দিন সকাল সাড়ে ৭টায় ঢাকার শাহবাগস্থ ঢাকা ক্লাবের সামনে থেকে সেগুনবাগিচাস্থ গণপূর্ত অধিদপ্তর প্রাঙ্গণ পর্যন্ত এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি অনুষ্ঠিত হবে। র‌্যালি উদ্বোধন করবেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, এমপি। বিশ্ব বসতি দিবস উপলক্ষে আগামীকাল জাতীয় দৈনিকসমূহে বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করবে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়।
এছাড়া দিবসটি উপলক্ষে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে একটি বিশেষ স্মরণিকা প্রকাশ হচ্ছে। ঢাকায় ও ঢাকার বাইরের বিভাগীয় ও জেলা শহরগুলোতে একই দিনে র‌্যালি অনুষ্ঠিত হবে এবং দিবসের প্রতিপাদ্য নিয়ে বিশেষ সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারসহ বেসরকারি টেলিভিশন, বেসরকারি বেতার ও কমিউনিটি রেডিওসমূহ দিবসটি উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠান প্রচার করবে।
এছাড়া দিবসটি উপলক্ষে হাউজিং অ্যাÐ বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউট এর তত্ত¡াবধানে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র প্রাঙ্গণে আগামীকাল থেকে তিন দিনব্যাপী গৃহায়ন মেলা অনুষ্ঠিত হবে।