এফএনএস: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মন্ত্রণালয়ের অধীন স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের প্রশিক্ষণের জনবল মনোনয়নে অনিয়মের অভিযোগে অভিযান চালায় গতকাল বৃহস্পতিবার দুদকের একটি বিশেষ টিম। দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে (টোল ফ্রি হটলাইন-১০৬) অভিযোগ আসে, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগ থেকে প্রশিক্ষণের বিষয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ততা নেই-এমন অনেক ব্যক্তিকে স্বজনপ্রীতি এবং অনিয়মের মাধ্যমে বৈদেশিক প্রশিক্ষণে মনোনয়ন দিয়ে রাষ্ট্রীয় অর্থের ব্যাপক অপচয় করা হয়েছে। অভিযোগ পেয়ে দুদক প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শেখ গোলাম মাওলা ও উপ-সহকারী পরিচালক বিলকিস আক্তারের সমন্বয়ে গঠিত একটি টিম স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরে অভিযান চালায়। সরেজমিন অভিযানে টিম জানতে পারে, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগ থেকে মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া ও থাইল্যান্ডে প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও ব্যক্তিগত কর্মকর্তা পদমর্যাদার ২১ জনকে এপিএ, এনআইএস, ইনোভেশন প্রভৃতি বিষয়ের বৈদেশিক প্রশিক্ষণের জন্য মনোনীত করা হয়েছে, যাদের প্রশিক্ষণের বিষয়ের সঙ্গে কর্মধারার নূন্যতম সম্পৃক্ততা নেই।