স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়র্বজ্জামান লিটনের সাথে সৌজন্য সাৰাৎ করেছেন বাংলাদেশের ঢাকায় নিযুক্ত জাপান দূতাবাসের কর্মকর্তারা।
গতকাল বৃহস্পতিবার নগর ভবনের মেয়র দপ্তরকৰে মেয়রের সাথে সাৰাৎ করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপান দূতাবাসের সেকেন্ড সেক্রেটারি তাকাশি শিরাই ও কনসালটেন্ট কোযুয়ে কাতো। এ সময় তাঁরা মেডিকেল বর্জ্য ব্যবস’াপনা নিয়ে আলোচনা করেন। আলোচলাকালে রাজশাহীর পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার প্রশংসা করেন জাপান দূতাবাসের কর্মকর্তারা।
এ সময় রাসিকের বর্জ্য ব্যবস’াপনা স’ায়ী কমিটির সভাপতি প্যানেল মেয়র-১ ও ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবুসহ অন্যান্য কাউন্সিলরবৃন্দ, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাওগাতুল আলম, প্রিজম বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের মেডিকেল বর্জ্য ব্যবস’াপনা প্রোগ্রামের প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর মাজহার্বল ইসলাম প্রমুখ উপসি’ত ছিলেন।
মাজহার্বল ইসলাম জানান, মেডিকেল বর্জ্য ব্যবস’াপনায় রাসিকের সাথে প্রিজম বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের চুক্তি স্বাৰরিত হয়ে আছে। চুক্তি অনুযায়ী রাসিকের ভাগারের পাশে মেডিকেল বর্জ্য পরিশোধনে পৱ্যান্ট তৈরি করা হচ্ছে। মেডিকেল বর্জ্য ব্যবস’াপনায় জাপান সরকার প্রিজম বাংলাদেশকে সহযোগিতা প্রদান করে। প্রিজম বাংলাদেশের সেই পৱ্যান্ট পরিদর্শন করেন জাপান দূর্তাবাসের কর্মকর্তারা।