সোনালী ডেস্ক: যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীর ব্যাংক হিসাব তলব করেছে বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ)। আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে তার নামে থাকা সব হিসাবের লেনদেন তথ্য, বিবরণীসহ ব্যাংকগুলোকে পাঠাতে বলা হয়েছে।
এছাড়া পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) আনিসুর রহমান ও তার স্ত্রী সাবেক সংসদ সদস্য ফাতেমা তুজ্জহুরাসহ তাদের সন্তানদের ব্যাংক হিসাবও তলব করা হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার তাদের হিসাব তলব করে ব্যাংকগুলোকে চিঠি দিয়েছে বলে বিএফআইইউয়ের নির্ভরযোগ্য সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।
বিএফআইইউর চিঠিতে ওমর ফারুকের জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর (এনআইডি) উল্লেখ করে তথ্য চাওয়া হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, যুবলীগ সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরীর নামে থাকা সব ধরনের ব্যাংক হিসাবের লেনদেন, বিবরণীর তথ্য তিন কার্যদিবসের মধ্যে পাঠাতে হবে।
এর আগে ক্যাসিনো কেলেঙ্কারির ঘটনায় গত ২২ সেপ্টেম্বর ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন ও তার স্ত্রী ফারজানা চৌধুরী, যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট, সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া, প্রশান্ত কুমার হালদার, আফসার উদ্দীন মাস্টার, আয়েশা আক্তার, শামীমা সুলতানা, শেখ মাহামুদ জোনাইদ, জহুর আলম, এসএম আজমল হোসেন, ব্রজ গোপাল সরকার ও শরফুল আওয়ালের ব্যাংক হিসাব তলব করে বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট। অনেকের ব্যাংক হিসাব অবরুদ্ধও (ফ্রিজ) করা হয়। ফ্রিজ করা হিসাব থেকে টাকা উত্তোলন ইতিমধ্যে বন্ধ হয়ে গেছে।
অপর এক চিঠিতে পুলিশ কর্মকর্তা আনিসুর রহমান, তার স্ত্রী সাবেক নারী সংসদ সদস্য ফাতেমা তুজ্জহুরা এবং তাদের ছেলে নাফিস তাহিয়াত ও মেয়ে আনিসা ফাতেমার ব্যাংক হিসাব তলব করা হয়েছে। আনিসুর রহমান বর্তমানে তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) হিসেবে কর্মরত। তার স্ত্রী ফাতেমা তুজ্জহুরা দশম সংসদে শেরপুরের সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য ছিলেন।