স্টাফ রিপোর্টার: বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে রাজশাহীতে পালিত হয়েছে জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় ‘বৈশ্বিক প্রতিযোগিতায় উৎপাদনশীলতা’ বিষয়ক প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে রাজশাহী জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বর্ণাঢ্য র‌্যালি শেষে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মহাম্মদ শরিফুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি মনিরুজ্জামান, রাজশাহী সুগার মিল লি:-এর মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) শাহিনুল ইসলাম, রাজশাহী বিসিক (শিসকে) মহাব্যবস্থাপক আকমল হোসেন।
সভায় আরো বক্তব্য রাখেন রাংলাদেশ রেশম শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি মো: লিয়াকত আলী, রাজশাহী উইমেন চেম্বারের সভাপতি রোজিটি নাজনীন ও রাজশাহী ওয়েব-এর সভাপতি আঞ্জুমান আরা প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেন, ইতোমধ্যে আমরা এমডিজি অর্জন করেছি। এসডিজি অর্জনের জন্য আমরা কাজ করছি। আমাদের সামনে কতকগুলো টার্গেট রয়েছে। সে টার্গেট যদি আমরা পূরণ করতে চাই তালে আমাদের উৎপাদনশীলতা অব্যাহত রাখতে হবে। এখন আমরা দেশের মধ্যে সীমাবদ্ধ নই। আমরা বিশ্বের সাথে প্রতিযোগিতায় অবতীর্ণ হয়েছি। এখন আমাদের উন্নয়নের ধারাকে টেকসই উন্নয়নে পরিণত করতে পারলেই ২০৩২ সালের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নত দেশগুলোর মধ্যে ২৫তম স্থানে পৌঁছে যাবে।
বক্তারা আরও বলেন, উৎপাদনশীলতা অব্যাহত রাখতে হলে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে হবে। স্বল্প সময়ে, স্বল্পমূল্যে মানসম্পন্ন পণ্য উৎপাদনই হচ্ছে উৎপাদনশীলতা। উৎপাদনশীলতার প্রধান বাধা দুর্নীতি। উদপাদনশীলতা রক্ষা করতে হলে দুর্নীতিকে সমূলে ধ্বংস করতে হবে। আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য উন্নত সমাজ ও দেশ গড়তে উৎপাদনশীলতা অব্যাহত রাখতে হবে।
এর আগে, সকাল সাড়ে ১০টায় নগরীর শহিদ এএইচএম কামারুজ্জামান কেন্দ্রীয় উদ্যান থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষের আলোচনা সভায় মিলিত হয়।
জেলা প্রশাসন আয়োজিত উৎপাদনশীলতা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত র‌্যালি ও আলোচনা সভায় রাজশাহী জেলা প্রশাসন ও শিল্পাঞ্চলের কর্মকর্তাবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।