নওগাঁ ব্যুরো: গ্রাহকের আমানতের টাকা আত্মসাতের ঘটনায় নওগাঁ সঞ্চয় অধিদপ্তরের সঞ্চয় কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন ও রংপুর বিভাগীয় অফিসের উপ-পরিচালক মহরম আলীকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। সোমবার সন্ধ্যায় নওগাঁ শহরের এটিএম মাঠ এলাকা থেকে তাদের ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। দুদক রাজশাহী অফিসের কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন এই গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আটকের পর তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠায়।
দুদকের কর্মকর্তারা জানান, গত বছর অডিটে নওগাঁ সঞ্চয় অধিদপ্তরে ২ কোটি ৩৭ লাখ টাকার আমানত আত্মসাতের ঘটনা ধরা পড়ে। এরপর তদন্তে নামে দুদক। শুরুতেই অফিস সহকারী সাদ্দাম হোসেনকে আটক করে দুদক। সাদ্দামকে জিজ্ঞাসাবাদ করার পর প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে ২৫ সেটেম্বর অভিযান চালিয়ে নওগাঁ জেলার অধিদপ্তরের উচ্চমান সহকারী হাসান ইমামকে আটক করা হয়। একই সাথে হাসান ইমামের ব্যবহৃত আলমারি থেকে ২২ লাখ ৮৭ হাজার টাকা উদ্ধার করে দুদক কর্মকর্তারা। পরে হাসান ইমামকে ৩ দিনের রিমান্ডে নেয় দুদক। রিমান্ডে হাসান ইমামের দেয়া তথ্য অনুযায়ী আবারও অভিযানের নামে দুদকের কর্মকর্তারা। সেই তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার সন্ধ্যায় মহরম আলী ও নাসির উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করা হয়।
সূত্র জানায়, নওগাঁ সঞ্চয় অধিদপ্তর থেকে ৫০ থেকে ৬০ জন গ্রাহকের জমাকৃত আমানতের টাকা আত্মসাতের ঘটনা ঘটে। ২০১৮ সালের অডিটে ধরা পরে এই ঘটনা। ঘটনার সাথে আর কেউ জড়িত আছে কি না সে বিষয়টিও খতিয়ে দেখছে দুদক।