এফএনএস বিদেশ: সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার দায় স্বীকার করলেন সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। মার্কিন টিভি চ্যানেল পিবিএসকে দেয়া সাক্ষাৎকারে সৌদি এই যুবরাজ বলেছেন, খাশোগি হত্যার দায় তার নিজের। কারণ তার পর্যবেক্ষণ ও নজরদারিতে খাশোগি হত্যার ঘটনা ঘটেছে। সৌদি যুবরাজের এই সাক্ষাৎকার আগামী ১ অক্টোবর পিবিএস টেলিভিশনে স¤প্রচারিত হবে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে।
সৌদি আরবের এই ডি ফ্যাক্টো নেতা এই প্রথম খাশোগিকে হত্যার কথা স্বীকার করলেন। এর আগে তুরস্কের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোসহ বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছিল, যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সরাসরি নির্দেশে তুরস্কের ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে সৌদির একদল ঘাতক।
পিবিএসকে দেয়া সাক্ষাৎকারে যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমান ওই হত্যাকাÐের সব দায় নিয়ে বলেন, আমার নজরদারিতে এ ঘটনা ঘটেছে, আমি এর সব দায় নিচ্ছি। কারণ আমার পর্যবেক্ষণে থাকা অবস্থাতেই ঘটনা ঘটেছে। জামাল খাশোগি হত্যার এক বছর পূর্তির আগে তিনি এ স্বীকারোক্তি দিলেন। সৌদি যুবরাজের সমালোচক হিসেবে পরিচিত সাংবাদিক জামাল খাশোগি ২০১৮ সালের ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশ করার পর নিখোঁজ হন।
সৌদি সরকার ১৭ দিন ধরে খাশোগির অবস্থান সম্পর্কে কোনো কিছু জানা থাকার কথা অস্বীকার করার পর তীব্র আন্তর্জাতিক চাপের মুখে ১৯ অক্টোবর স্বীকার করে, খাশোগিকে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতরে হত্যা করা হয়েছে। সৌদি সরকারের হাতে আটক ও খুন হওয়ার আশঙ্কায় স্বেচ্ছায় দেশত্যাগ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছিলেন জামাল খাশোগি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাকে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতরে সৌদি গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের হাতে নির্মমভাবে খুন হতে হয়।
হত্যাকাÐের দায়ে এক ডজনেরও বেশি সৌদি কর্মকর্তাকে আটক করা হলেও তুরস্কের তদন্তকারী কর্মকর্তারা তাদের হাতে থাকা তথ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে বলেছেন, সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানের সরাসরি নির্দেশে খুন হন জামাল খাশোগি।