স্টাফ রিপোর্টার: চাঁপাইনবাবগঞ্জের রামচন্দ্রপুর হাটে আজিজুল হক আজু হত্যা মামলার ১১ আসামিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদÐ প্রদান করা হয়েছে। এছাড়াও আসামিদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে অর্থদÐ অনাদায়ে ১ বছর করে সশ্রম কারাদÐের আদেশ দিয়েছেন আদালত।
গতকাল রোববার রাজশাহীর দ্রæত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক অনুপ কুমার এই মামলার রায় প্রদান করেণ। এছাড়াও এই আসামিদের বিস্ফোরক মামলায় আরও ১৫ বছর সশ্রম কারাদÐে দÐিত করা হয়েছে। ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি এন্তাজুল হক বাবু এ তথ্য নিশ্চিত করেণ।
সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলো ইনজিল (পলাতক), কালাম, গোলাপ, সাব্বির ওরফে নয়ন, বাঘা (পলাতক), টুটুল (পলাতক), আপেল, আতিকুল (পলাতক), তোহা, সিজার (পলাতক) এবং নাহু। সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে ৫ জন পলাতক রয়েছে। এই মামলার ৩২ জন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের খালাস দিয়েছেন আদালত।
আদালত সংশ্লিষ্ট এবং মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আসামিরা ২০১৪ সালের ৮ জুন বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রামচন্দ্রপর হাটে নুরুলের চায়ের দোকানে পূর্বপরিকল্পিতভাবে আজিজুল হক আজুর ওপর হামলা চালায়। এসময় আসামিরা আজুকে হাসুয়া, লাঠি দ্বারা মারপিট ছাড়াও তার ওপর বোমা হামলা চালিয়ে শাথাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ ছিন্ন ভিন্ন করে হত্যা করে।
পরদিন ভিকটিম আজুর স্ত্রী রানী বেগম নবাবগঞ্জ সদর মডেল থানায় বাদী হয়ে দÐবিধির ১৪৩/১৪৮,১৪৯/৩০৭/৩০২/১১৪/৩৪ ধারা তৎসহ ১৯০৮ সালের বিস্ফোরক উপাদানাবলী ( সংশোধনী/০৩) আইনের ৩/৪ ধারায় এজাহার দায়ের করেণ। থানার মামলা নং-১৫, তারিখ- ৯/৬/২০১৪।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক সারোয়ার রহমান ২০১৫ সালের ১০ মে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।