স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী নগরীর উপশহর এলাকায় এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
গতকাল রোববার রাতে ছয়তলা একটি ভবনের সব ওপরের তলার একটি ঘর থেকে দরজা ভেঙে লাশটি উদ্ধার করা হয়।
নিহত গৃহবধূর নাম ফাহিমা খাতুন (২২)। তিনি চারঘাট উপজেরার হলিদাগাছি এলাকার আব্দুল কুদ্দুসের মেয়ে। তার স্বামীর নাম শামসুল ইসলাম আলম (২৬)। তিনি রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার বালানগর এলাকার আব্দুল মান্নানের ছেলে। শামসুল ও ফাতিমা এই ভবনে ভাড়া থাকতেন।
নগরীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারন চন্দ্র বর্মণ বলেন, সন্ধ্যায় তার স্বামী জানালা দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ দেখে সবাইকে ডাকাডাকি করেন। পরে পুলিশ গেলে তিনি পালিয়ে যান। এরপর দরজা ভেঙে ফাতিমার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এটি আত্মহত্যা বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে। আর এ নিয়ে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে বলেও জানা ওসি।