এফএনএস: সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়ার একঘণ্টা পর ফিরে এসে শাহজালাল আনত্মর্জাতিক বিমানবন্দরে জরম্নরি অবতরণ করেছে বিমান বাংলাদেশের উড়োজাহাজ ময়ূরপঙ্খী। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে বিমানের বিজি-০৮৪ ফ্লাইট আরোহীদের নিয়ে নিরাপদে অবতরণ করে বলে বিমানের জনসংযোগ শাখার উপ-মহাব্যবস্থাপক তাহেরা খন্দকার জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, আমরা এটাকে জরম্নরি অবতরণ বলছি না। ল্যান্ডিং গিয়ারে সমস্যার কারণে বিমানটি টেকনিক্যাল ল্যান্ডিং করেছে। বিমানটি নিরাপদে অবতরণ করায় সবাই অক্ষত রয়েছেন। এর আগে সকাল ৮টা ২৫ মিনিটে ১৪৩ জন যাত্রী ও সাত জন ক্রু নিয়ে সিঙ্গাপুরের পথে উড়াল দেয় উড়োজাহাজটি।
জরম্নরি অবতরণের পর বেলা ১১টার দিকে অন্য একটি উড়োজাহাজে করে ময়ূরপঙ্খীর যাত্রীদের সিঙ্গাপুরে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তাহেরা। ২০১৬ সালে ১২ জানুয়ারি বিমানের বহরে যুক্ত হয় বোয়িং ৭৩৭-৮০০ মডেলের উড়োজাহাজ ময়ূরপঙ্খী। উড়োজাহাজটি ঢাকা-সিঙ্গাপুর, ঢাকা-ব্যাংকক ও ঢাকা-সিলেট রম্নটে চলাচল করে। গত ২৪ ফেব্রম্নয়ারি চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমানবন্দরে এই বিমানেই কমান্ডো অভিযানে নিহত হন ‘পিসত্মলধারী’ যুবক নারায়ণগঞ্জের পলাশ আহমেদ।
পরিচালনাকারীরা জানিয়েছিলেন, স্ত্রীর বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছিলেন পলাশ। পরে সিআইডি জানায়, পলাশের হাতে থাকা সেদিনের পিসত্মলটি ছিল দেশে তৈরি পস্নাস্টিকের খেলনা।ওই ঘটনায় করা মামলার তদনত্ম করছে চট্টগ্রাম পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। এঘটনায় পলাশের বাবা-মা ও দ্বিতীয় স্ত্রী চিত্রনায়িকা সামসুর নাহার সিমলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ।