স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের সংসদ সদস্য ওমর ফারম্নক চৌধুরীর মালিকানাধীন ওমর থিম পস্নাজার কয়েকটি খাবারের দোকানে পচা খাবার পেয়েছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরড়্গণ অধিদপ্তর। তাই ভবনের তিনটি খাবারের দোকানকে জরিমানা করা হয়েছে।
ভোক্তা অধিকার সংরড়্গণ অধিদপ্তর বলছে, থিম ওমর পস্নাজার খাবারের দোকানগুলোতে অতিরিক্ত দামও আদায় করা হয়। আইন-কানুনের অনেক বিষয়ই তারা জানেন না অথবা মানেন না। তাই ভবনের সব খাবারের দোকানের মালিককে তলব করা হয়েছে। ভোক্তা অধিকার আইনের বিষয়ে তাদের অবহিত করা হবে।
গতকাল বুধবার দুপুরে প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে রাজশাহীর নিউমার্কের পাশে অবস্থিত অভিজাত থিম ওমর পস্নাজায় অভিযান চালায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বিভাগীয় কর্মকর্তারা। অভিযানে নেতৃত্ব দেন সংস্থাটির বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক হাসান আল মারম্নফ।
তিনি জানান, থিম ওমর পস্নাজায় ‘আড্ডা’, ‘রেলিশ’ ও ‘অ্যারো স্পুন’ নামের তিনটি খাবারের দোকানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় দোকানগুলোতে ভেজাল, পচা ও মেয়াদোত্তীর্ণ খাবার পাওয়া যায়। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী তিন দোকানের মালিককে ৫ হাজার টাকা করে মোট ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
হাসান মারম্নফ আরও জানান, অভিজাত এই শপিংমলে এমনিতেই দাম বেশি নেয়ার অভিযোগ রয়েছে। কিন্তু খাবার মান অত্যনত্ম খারাপ। যা স্বাস্থ্যঝুঁকির কারণ হতে পারে। তাই আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থিম ওমর পস্নাজার ব্যবসায়ীদের ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কার্যালয়ে ডাকা হয়েছে।
এদিকে, এই অভিযানের খবর গতকালই ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের রাজশাহীভিত্তিক কয়েকটি গ্রম্নপে। সেখানেও অনেক ভুক্তভোগী অভিযোগ করেছেন থিম ওমর পস্নাজায় খাবারের দাম চড়া, মান তলানিতে। তাই তিন দোকানকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা খুব কম হয়েছে বলেও মনত্মব্য করেছেন অনেকে। এ ধরনের অভিযান নিয়মিতই চালানোর দাবি করেছেন কেউ কেউ।