স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী বিভাগের আট জেলায় এবার ৩ হাজার ২৮২টি ম-পে শারদীয় দুর্গাপূজার আয়োজন করা হবে। প্রত্যেকটি পূজা ম-প ঘিরে পুলিশের পড়্গ থেকে নেওয়া হবে ব্যাপক নিরাপত্তা। পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) একেএম হাফিজ আক্তার এ তথ্য জানিয়েছেন।
তিনি জানান, রাজশাহী জেলায় এবার পূজা ম-পের সংখ্যা ১৭২টি। এছাড়া নওগাঁয় ৭৮৬টি, চাঁপাইনবানগঞ্জে ১৩৯টি, নাটোরে ৩৭৭টি, পাবনায় ৩৫১টি, সিরাজগঞ্জে ৪৯৪টি, বগুড়ায় ৬৭১টি ও জয়পুরহাটে ২৯২টি ম-পে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। তবে এই সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।
পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, শানিত্মপূর্ণভাবে দুর্গোৎসব শেষ করতে গত সোমবার সন্ধ্যায় তার কার্যালয়ে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় আট জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) ও পূজা উৎযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দ উপসি’ত ছিলেন। তারা নিজ নিজ এলাকার প্রস’তির কথা জানিয়েছেন।
ডিআইজি জানান, আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর মহালয়া থেকে শুরম্ন করে আট অক্টোবর বিসর্জন পর্যনত্ম পূজার সার্বিক নিরাপত্তায় কাজ করবে পুলিশ। পাশাপাশি পূজার চার দিন থাকবেন আনসার সদস্যরা। দুর্গা পূজাকে কেন্দ্র করে এখন পর্যনত্ম রাজশাহীতে কোনো হুমকির শঙ্কা নেই বলে জানিয়েছে গোয়েন্দা বাহিনী।
তিনি আরও জানান, পূজা চলাকালীন সময়ে যে কোনো অনিয়ম চোখে পড়লে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুলে ধরার আগে স’ানীয় পুলিশ বা পূজা উৎযাপন কমিটি অথবা জাতীয় জরম্নরি সেবা ৯৯৯ এ কল দিয়ে জানানোর পরামর্শ দেন পুলিশ কর্মকর্তা একেএম হাফিজ আক্তার।