বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০১৯-২০ শিড়্গাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীড়্গার প্রাথমিক আবেদনের ফলপ্রকাশ করা হয়েছে। এবার চূড়ানত্ম পরীড়্গায় অংশগ্রহণের জন্য তিনটি ইউনিটে ৯১ হাজার ৭৯৪ জনকে মনোনীত করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে আইসিটি সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক খাদেমুল ইসলাম মোল্যা স্বাড়্গরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, উচ্চ মাধ্যমিকের ফলাফলের ভিত্তিতে ‘এ’ ও সি ইউনিটে ৩২ হাজার করে শিড়্গার্থীকে মনোনীত করা হয়েছে। ‘এ’ ইউনিটে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শাখায় সর্বনিম্ন জিপিএ-৪.১৭ প্রাপ্ত শিড়্গার্থীরা এবং ‘সি’ ইউনিটে বিজ্ঞান শাখায় জিপিএ-৪.৫, মানবিক শাখায় জিপিএ-৪.১৭, ব্যবসায় শাখায় জিপিএ-৪.২৫ প্রাপ্ত শিড়্গার্থীরা চূড়ানত্ম আবেদনের জন্য মনোনীত হয়েছে। একই জিপিএ প্রাপ্ত শিড়্গার্থীদের মধ্যে এইচএসসি/সমমান পরীড়্গায় প্রাপ্ত নম্বর বিবেচনা করা হয়েছে। এছাড়া বি ইউনিটে প্রাথমিকভাবে আবেদনকারী ২৭হাজার ৭৯৪জন সবাইকে চূড়ানত্ম আবেদনের জন্য মনোনীত করা হয়েছে।
বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, মনোনীত শিড়্গার্থীদের ২৩ সেপ্টেম্বরের সন্ধ্যা ৫টার মধ্যে আবেদন করতে হবে। এতে এ ও সি ইউনিটে শিড়্গার্থী-সংখ্যা ৩২ হাজর পূর্ণ না হলে দ্বিতীয় পর্যায়ে নতুন তালিকা প্রকাশ করা হবে। এ তালিকায় থাকা শিড়্গার্থীদের ২৪ সেপ্টেম্বর বেলা ১২টা থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর বিকেল ৫টার মধ্যে আবেদন করতে হবে।
এরপরও শিড়্গার্থী সংখ্যা পূর্ণ না হলে তৃতীয় পর্যায়ে নতুন শিড়্গার্থীর তালিকা প্রকাশ করা হবে। তাদেরকে ২৮ সেপ্টেম্বর বেলা ১২টা থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর বিকেল ৫টার মধ্যে আবেদন করতে হবে। চূড়ানত্ম আবেদনের ড়্গেত্রে প্রতি ইউনিটের জন্য ১৩২০টাকা। ভর্তি পরীড়্গ সংক্রানত্ম প্রয়োজনীয় তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।
প্রসঙ্গত, আগামী ২০, ২১ ও ২২ অক্টোবর ভর্তি পরীড়্গা অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তি পরীড়্গায় অংশ নিতে প্রাথমিক আবেদন করেছেন ১ লড়্গ ৩৭ হাজার ভর্তিচ্ছু। এদের মধ্যে ‘এ’ ইউনিটে ৫৪ হাজার ৭৬ জন, ‘বি’ ইউনিটে ২৭ হাজার সাতশ ৯৪ জন এবং ‘সি’ ইউনিটে ৫৬ হাজার ৩৩ জন ভর্তিচ্ছু শিড়্গার্থী। এইচএসসি পরীড়্গার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রতি ইউনিটে সর্বোচ্চ ৩২ হাজার করে সর্বোচ্চ ৯৬ হাজার শিড়্গার্থী ভর্তি পরীড়্গায় অংশ নিতে পারবেন।