এফএনএস: ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বি মিয়া বলেছেন, শিগগিরই মাতৃত্বকালীন ছুটি ৬ মাস থেকে বাড়িয়ে ৮ মাসে করা হবে। তিনি বলেন, শিশুদের বেড়ে উঠতে তার যত্নে যেন কোন ঘাটতি না হয় সে লক্ষ্যে বর্তমান সরকারের মাতৃত্বকালীন ছুটি বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের আইপিডি সম্মেলন কক্ষে শিশু অধিকার বিষয়ক সংসদীয় ককাস ও চাইল্ড রাইটস অ্যাডভোকেসি কোয়ালিশন ইন বাংলাদেশ আয়োজিত ‘বর্তমান শিশু অধিকার পরিস্থিতি ও করণীয়’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ডেপুটি স্পিকার এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, একজন মা যেনো গর্ভবতী হওয়ার দিন থেকেই সকল বাধা অতিক্রম করতে পারে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর এ দৃঢ় পরিকল্পনা বাসত্মবায়নে ও শিশু অ্যাডভোকেসির জন্য তৃণমুল থেকে সাংসদ পর্যনত্ম সকলকে এক যোগে কাজ করতে হবে বলেও জানান তিনি।
ডেপুটি স্পিকার বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলতেন ‘শিশু বাঁচলে জাঁতি বাঁচবে’। তাই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে হলে আমাদের দেশের শত্রম্নদের চিহ্নিত করে শিশুদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে হবে। শিশুদের প্রতি জাতির জনকের যে অবদান তা আমরা আজও ছাপিয়ে যেতে পারিনি। শিশুদের উন্নয়নে বর্তমান সরকারের নানা অবদান তুলে ধরে তিনি বলেন,শিশু পাচারের পরিমাণ উলেস্নথযোগ্য হারে কমে এসেছে, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বাচ্চাদের ঝড়ে পড়ার হার ৫ শতাংশে নেমে এসেছে।
শিশু অধিকার বিষয়ক সংসদীয় ককাসের সভাপতি সংসদসদস্য মো: শামসুল হক টুকুর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহম্মেদ শিমুল, মো: আছলাম হোসেন সওদাগর, অ্যারমা দত্ত, উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম, আদিবা আনজুম মিতাসহ সেভ দ্য চিলড্রেন, আইন ও সালিশ কেন্দ্র, একশন এইড ও পস্নান এর কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।