এফএনএস: ঘরে বসে অনলাইনে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করার সুবিধা চালু করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। গতকাল বৃহস্পতিবার মন্ত্রণালয়ে ‘ডিজিটাল কেইস ডায়েরি’ এর ওপর পর্যালোচনা সভা শেষে মন্ত্রী তিনি বলেন, অনলাইনে জিডি করার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। একজনকে এ বিষয়ে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। শুরম্নতে অনলাইনে ‘লস্ট অ্যান্ড ফাউন্ড’ জিডি করা যাবে, আর প্রাথমিকভাবে ঢাকা ও ময়মনসিংহে এ পদ্ধতি চালু করা হবে। পর্যায়ক্রমে সব ধরনের জিডি অনলাইনে নেওয়ার সুবিধা সারাদেশে চালু করা হবে বলে জানান তিনি। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক সভায় উপিস্থত ছিলেন। ‘নিরাপদ নগরী’(সেইফ সিটি) নিয়েও সভায় আলোচনা হয়েছে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, শুরম্নতে ঢাকা মহানগরকে, পরবর্তীতে চট্টগ্রামসহ অন্যান্য সিটিকে এ প্রজেক্টের আওতায় আনা হবে। ঢাকা মহানগরে প্রায় ছয় হাজার কিলোমিটার রাসত্মা রয়েছে। সেইফ সিটির আওতায় সমসত্ম রাসত্মায় ক্যামেরা বসানো হবে এবং ট্রাফিক ব্যবস্থাপনাও এর মধ্যে নিয়ে আনা হবে। টাঙ্গাইলের ধারাবাহিকতায় দেশের সব কারাগারে বন্দীদের মোবাইল ফোনে স্বজনের সঙ্গে কথা বলার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রী। আমরা দেখেছি স্বজনদের সাথে বন্দীদের কথা বলার সুযোগ দেওয়ায় সরাসরি সাক্ষাত প্রায় ৮০ শতাংশ কমে গেছে। তাই সারাদেশে কারাগারগুলোতে বন্দীদের সাথে স্বজনদের মোবাইল ফোনের কথা বলার প্রজেক্ট চালু করতে যাচ্ছি। এছাড়া জরম্নরি সেবার ‘৯৯৯’ নম্বরের কার্যক্রমে আরও গতি আনতে একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে ছয় সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানান আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। এদিকে বৈঠকের শুরম্নতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, এ পর্যনত্ম এক কোটি ৪২ লাখ কল রিসিভ হয়েছে ৯৯৯ নম্বরে। এই সেবায় বর্তমান জনবল ১৪২ জন এবং আরও ৫০০ জন নিয়োগ করা হবে।