স্টাফ রিপোর্টার: নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে রাজশাহীতে আনত্মর্জাতিক স্বাড়্গরতা দিবস পালন করা হয়েছে। দিবসটি উপলড়্গে গতকাল রোববার সকালে জেলা শিল্পকলা অ্যাকাডেমি মিলনায়তনে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। ‘বহু ভাষায় স্বাড়্গরতা, উন্নত জীবনের নিশ্চয়তা’ প্রতিপাদ্যে জেলা প্রশাসন এই সভার আয়োজন করে।
এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন ও আইসিটি) জাকীর হোসেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশে এখনো তিন কোটি মানুষ নিরড়্গর। অর্থাৎ ২৩ শতাংশ লোক লেখাপড়া জানে না। দেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করতে হলে শতভাগ শিড়্গার হার নিশ্চিত করতে হবে।
তিনি আরও বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লড়্গ্যমাত্রা (এসডিজি) বাসত্মবায়ন করতে হবে। এর যে ১৭টি লড়্গ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে তার মধ্যে চার নম্বরটি হলো- সবার জন্য গুণগত শিড়্গা নিশ্চিত করা। সবার জন্য শিড়্গা নিশ্চিত করতে পারলে দেশ দ্রম্নত উন্নতির দিকে এগিয়ে যাবে।
আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিড়্গা ও আইসিটি) মুহম্মদ শরিফুল হক। মূখ্য আলোচক ছিলেন শিড়্গাবিদ ড. তসিকুল ইসলাম রাজা। আলোচনা সভায় তারা শিড়্গার গুরম্নত্ব তুলে ধরেন। এর পাশাপাশি বর্তমান প্রজন্মের শিড়্গার্থীরা দেশের জন্য যে গুরম্নত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে সে বিষয়গুলো তুলে ধরেন।
আলোচনা সভার আগে সকালে নগরীর মণিবাজার চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। সেটি শিল্পকলা অ্যাকাডেমির সামনে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিড়্গা প্রতিষ্ঠানের শিড়্গক ও শিড়্গার্থীরাও উপস্থিত ছিলেন। দিবসটি উপলড়্গে নগরীর লক্ষ্মীপুর মোড়ে শিড়্গা-সচেতনতামূলক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শনেরও আয়োজন করা হয়।