স্টাফ রিপোর্টার: প্রখ্যাত কথা সাহিত্যিক অধ্যাপক হাসান আজিজুল হক বলেছেন, বাঙলা ও বাঙালি ও ব্রাত্যজনের নামের যে বইটি প্রকাশ পেতে যাচ্ছে তাতে বই-এর ভাষা, বিষয়বস্তু যে ভাবে রচিত হয়েছে তাতে গ্রন্থটি প্রকাশ হলে আমাদের প্রত্ন ইতিহাসের এবং আধুনিক কালের যে বাংলাদেশে আমরা বসবাস করছি তার অনেকটা পরিচিতি এ থেকে পাওয়া যাবে।
গতকাল রোববার বিকেলে নগরীর শাহমখদুম কলেজ হল রম্নমে কবিকুঞ্জ আযোজিত বিজন গোলদার প্রণিত বাঙলা বাঙালি ও ব্রাত্যজনের কথা গ্রন্থের প্রকাশনা উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
অধ্যাপক হাসান আজিজুল হক আরো বলেন, দীর্ঘকাল ধরে বাঙালি যেভাবে সম্মৃদ্ধশালী এক জাতি হিসেবে গড়ে উঠেছে- তাতে বাঙালির ব্রাত্যজন, বাঙালির ভদ্রজনকে আর আলাদাভাবে তৈরি করার দরকার হয় না বরং ব্রাত্যজনেরই যে পর্যনত্ম দান তার ওপরেই জোর দেয়া দরকার।
এই বইটা পড়লে সেই বিবরণ খুব ভালভাবে পাওয়া যাবে বলে আমি মনে করি। কাজেই বইটির প্রকাশনা অত্যনত্ম গুরম্নত্বপূর্ণ । আমি আশা করি পাঠকেরা এটা পড়বেন এবং গ্রহণ করবেন।
কবিকুঞ্জের সভাপতি প্রফেসর রম্নহুল আমিন প্রামাণিকের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আরিফুল হক কুমারের পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন রাবি ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক আবুল কাশেম,শাহমখদুম কলেজের প্রাক্তন অধ্যড়্গ ড. তসিকুল ইসলাম রাজা, রাবি’র বাংলা বিভাগের ড,সুজিত সরকার ও গ্রন্থের প্রকাশক নিশাত জাহান রানা। অনুষ্ঠানে গ্রন্থের লেখক বিজন গোলদার তার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।