স্টাফ রিপোর্টার: দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা বলেছেন, রাজনীতি করতে হবে বঞ্চিত মানুষের জন্য। এ ছাড়া কোনো পথ নেই। এই লড়্গ্য থেকে এক বিন্দুও বিচ্যুত হওয়া যাবে না। তাহলেই ওয়ার্কার্স পার্টি গণমানুষের পার্টিতে পরিণত হবে।
গতকাল শনিবার দুপুরে ওয়ার্কার্স পার্টির রাজশাহী জেলা শাখার এক সাধারণ সভায় তিনি এ কথা বলেন। পার্টির দশম কংগ্রেস উপলড়্গে নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে দলীয় কার্যালয়ে এ সভার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দিচ্ছিলেন পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা ফজলে হোসেন বাদশা।
তিনি বলেন, বিএনপি জামায়াত জঙ্গিবাদের ওপর ভর করে জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। তারপর আওয়ামী লীগের পরে একটা দল ছিল জাতীয় পার্টি। দলটির চেয়ারম্যানের মৃত্যুর ৪০ দিন পার না হতেই ভাঙন দেখা দিয়েছে। এখন আওয়ামী লীগ আর ওয়ার্কার্স পার্টির মাঝে কোনো শক্তিশালী দল নেই। আছে কে, শুধু ওয়ার্কার্স পার্টি।
বাদশা বলেন, ওয়ার্কার্স পার্টি মানে আমি নই। দলের কোনো নেতা নয়। ওয়ার্কার্স পার্টি মানে আমি-আপনি সবাই। আমরা সবাই পারস্পরিক সহযোগিতার মধ্য দিয়ে ওয়ার্কার্স পার্টিকে গণমানুষের পার্টিতে পরিণত করব। শোষিত, বঞ্চিত, নির্যাতিত মানুষের জন্য আমরা রাজনীতি করব।
রাজশাহী-২ (সদর) আসনের এই সংসদ সদস্য বলেন, যদি সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে না পারি, তাহলে অন্য পার্টি এবং তাদের সংসদ সদস্যদের সঙ্গে আমাদের কোনো পার্থক্য থাকবে না। এটা হতে দেয়া হবে না। মানুষের জন্য লড়াই করতে হবে। আমাদের যেন কেউ লুটেরা, দুর্নীতিবাজ বলতে না পারে।
সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন পার্টির রাজশাহী মহানগরের সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু ও সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামাণিক দেবু। সভাপতিত্ব করেন জেলার সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিয়ারম্নল। সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক তোতার সঞ্চালনায় অন্যদের মধ্যে আরও বক্তব্য দেন- জেলা কমিটির সম্পাদকম-লীর সদস্য আবদুল মান্নান, ফরজ আলী, কয়েস উদ্দিন প্রমুখ।
এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য হজরত আলী, আকবর আলী, আজাহার উদ্দিন, রমজান আলী সাধু, বিমল চন্দ্র রাজোয়াড়, মাইনুল ইসলাম প্রমুখ। সভায় রাজশাহী জেলা এবং নয় উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টির অন্যান্য নেতাকর্মীরা অংশ নেন।