এফএনএস: ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল মাহাবুবুর রহমান বলেছেন, পৃথিবীতে সবচেয়ে সসত্মা দামে ওষুধ পাওয়া যায় বাংলাদেশে। এ ছাড়া খুব সহজে ওষুধ মেলে। ইউরোপ-আমেরিকাতে ওষুধের দাম বাংলাদেশের তুলনায় ১০ থেকে ২০ গুণ বেশি।
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রামে নকল, ভেজাল, আনরেজিস্ট্রার্ড, মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ প্রতিরোধে আয়োজিত জনসচেতনামূলক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। নগরের জামালখান রীমা কনভেনশন সেন্টারে এ সভা আয়োজন হয়। এর আগে পাহাড়তলী বিশেষায়িত চিকিৎসাকেন্দ্র ইমপেরিয়াল হাসপাতালসহ একাধিক স্থানে মডেল ফার্মেসি উদ্বোধন করেন মেজর জেনারেল মাহাবুবুর রহমান।
ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের ডিজি আরও বলেন, তবে দেশের মানুষের আয়ের তুলনায় এখানে ওষুধ দাম বেশি। ফলে নিম্ন আয়ের মানুষ টাকার অভাবে ওষুধ কিনে খেতে পারেন না। এ ছাড়া অনেক ওষুধ খাওয়ার পরেও কাজ করে না।
সেগুলোর অবশ্য অনেক কারণ রয়েছে। চাহিদার ৯৮ শতাংশ দেশীয় ওষুধে পূরণ হচ্ছে উলেস্নখ করে ডিজি মেজর জেনারেল মাহাবুবুর রহমান বলেন, বর্তমানে দেশে চাহিদার ৯৮ শতাংশ ওষুধ দেশীয় প্রতিষ্ঠান যোগান দিচ্ছে।
পাশাপাশি বিদেশি রফতানি হচ্ছে বাংলাদেশি ওষুধ। বাংলাদেশ কেমিস্টস অ্যান্ড ড্রাগিস্টস সমিতি চট্টগ্রামের সভাপতি সমীর কানিত্ম সিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ কেমিস্টস অ্যান্ড ড্রাগিস্টস সমিতির সভাপতি সাদিকুর রহমান।
ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের পরিচালক রম্নহুল আমিন, বাংলাদেশ ফার্মেসি কাউন্সিলের সহ-সভাপতি এম মোসাদ্দেক হোসেন, সচিব মুহাম্মদ মাহাবুবুল হক। উপস্থিত ছিলেন ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের উপ-পরিচালক মোসত্মাফিজুর রহমান, সহকারী পরিচালক ড. আকিব হোসেন, ঔষুধ তত্ত্বাবধায়ক হুসাইন মোহাম্মদ ইমরান, কামরম্নল হাসান প্রমুখ।