স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) সদর দপ্তর নির্মাণের কাজ বন্ধ রাখতে চিঠি দিয়েছে স’ানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। জেলা পরিষদের জমি দখল করে ভবনটি নির্মাণ করা হচ্ছে বলে এই চিঠি দেওয়া হয়েছে। গত রোববার (১ সেপ্টেম্বর) স’ানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের জেলা পরিষদ অধিশাখার উপসচিব ড. জুলিয়া মঈন আরএমপির কমিশনারের কাছে এই চিঠি পাঠিয়েছেন।
চিঠিতে বলা হয়েছে, জেলা পরিষদের জমিতে আরএমপির সদর দপ্তর নির্মাণ নিয়ে সৃষ্ট বিরোধ নিরসনে গত ২২ আগস্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও স’ানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের মধ্যে সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওই সভায় একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে জমির মাপজোখ করে জমির বিরোধ নিষ্পত্তি করবে। তাই বিরোধ নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যনত্ম নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার অনুরোধ করা হয় ওই চিঠিতে।
প্রসঙ্গত, রাজশাহী নগরীর সিঅ্যান্ডবি মোড়ে ৫ দশমিক ৯৫ একর জমি নিয়ে ছিলো জেলা পরিষদের ডাকবাংলো। এর মধ্যে জমির পশ্চিম দিক থেকে ১ দশমিক ৩৯ একর নগর পুলিশের (আরএমপির) কাছে বিক্রি করে জেলা পরিষদ। আর পূর্বের অংশের ডাকবাংলো ভাড়া নিয়ে চলছিলো আরএমপি সদর দপ্তরের কার্যক্রম। সর্বশেষ ২০১৬ সালের ১১ আগস্ট ২০১৫-১৬ অর্থবছরের ভাড়া পরিশোধ করে আরএমপি।
পরবর্তীতে আর ভাড়া প্রদান করা হয়নি। সম্প্রতি পুরো জমিটি দখলে নিয়ে সদর দপ্তরের নির্মাণ কাজ শুরম্ন করে আরএমপি। আর এ জন্য জেলা পরিষদের পুরনো ঐতিহ্যবাহী ডাকবাংলোটিও ভেঙে ফেলা হয়েছে। এ অবস’ায় অনুষ্ঠিত হয় আনত্মঃমন্ত্রণালয় সভা। তারপরই কাজ বন্ধ রাখার জন্য চিঠি দিল স’ানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।
জানতে চাইলে আরএমপির মুখপাত্র গোলাম রম্নহুল কুদ্দুস জানান, আমাদের কাছে পাঠানো চিঠিটি এখনও আমরা হাতে পাইনি। তবে আমাদের নির্মাণ কাজ করছে গণপূর্ত অধিদপ্তর। তাদের কাছে একটি মন্ত্রণালয় থেকে চিঠি এসেছে। সেখানেও কাজ বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। সে অনুযায়ী কাজ আপাতত বন্ধ রয়েছে।