এফএনএস: জাল এলসির মাধ্যমে বিডিবিএল থেকে ১৭৪ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে এমএম ভেজিটেবল অয়েল প্রোডাক্টস লিমিটেডের চেয়ারম্যান, এমডিসহ ১১ জনের বিরম্নদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল সোমবার দুপুরে দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ মামলাটি দায়ের করা হয়েছে বলে দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, জাল এলসির মাধ্যমে বিডিবিএল থেকে ১৭৪ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে এমএম ভেজিটেবল অয়েল প্রোডাক্টস লিমিটেডের চেয়ারম্যান হেফাজেতুর রহমান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক জহির উদ্দিনসহ ১১ জনের বিরম্নদ্ধে মামলা করেছে দুদক। ঢাকা সমন্বিত জেলা প্রধান কার্যালয়-১ এ উপ-পরিচালক গুলশান আনোয়ার প্রধান বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।
মামলার আসামিরা হলেন- এমএম ভেজিটেবল অয়েল প্রোডাক্টস লিমিটেডের চেয়ারম্যান মো. হেফাজেতুর রহমান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক জহির উদ্দিন, পরিচালক কফিল উদ্দিন, শফিক উদ্দিন, লুসিডা ট্রেডিংয়ের মালিক মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন চৌধুরী, মেসার্স গেস্নাব ইন্টারন্যাশনালের মালিক মো. মাহবুবুল আলম, বিডিবিএল প্রিন্সিপাল শাখার সাবেক জেনারেল ম্যানেজার সৈয়দ নুরম্নর রহমান কাদরী ও সাবেক সিনিয়র প্রিন্সিপাল কর্মকর্তা (এসপিও) দীনেশ চন্দ্র সাহা।
অনুসন্ধান প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেডের (বিডিবিএল) প্রধান শাখার সংশিস্নষ্ট কর্মকর্তারা জাল ডকুমেন্ট ও বেনিফিসিয়ারি প্রতিষ্ঠানের বাসত্মব অসিত্মত্ব আছে কিনা তা যাচাই না করে প্রতারণার আশ্রয় নিয়েছে। জাল নথিপত্র জেনেও আসামিরা ক্ষমতা অপব্যবহার করে আর্থিক সুবিধা নেওয়ার উদ্দেশ্যে মোট ১৭৪ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে দুদকের অনুসন্ধানে প্রমাণিত হওয়ায় আসামিদের বিরম্নদ্ধে দ-বিধির ৪০৯/৪২০/৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/১০৯ ধারা, দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারা ও মানিলন্ডারিং আইনে অভিযোগ আনা হয়েছে।