স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে ভারতীয় সীমানত্মরড়্গী বাহিনীর ছররা গুলিতে অনত্মত ১০ বাংলাদেশি নাগরিক আহত হয়েছেন। গতকাল সোমবার বেলা ১১টার দিকে রাজশাহীর চর খানপুর সীমানেত্ম এ ঘটনা ঘটে। আহতদের দাবি, তারা জমিতে ফসল বুনছিলেন। ট্রাকে করে বিএসএফ সদস্যরা এসে অতর্কিতভাবে তাদের ওপর শর্টগানের গুলি ছুঁড়েছে।
আহতরা হলেন- রম্নমোন (২৩), সুজন (২৩), সোহেল (২৮), দুলাল (৩৫), রবিউল (৩২) রম্নবেল (২৫), দলাল (৪০), জোটু (৪০), সুরম্নজ (১৯) এবং সুমন (৩০)। খানপুর গ্রামেই তাদের বাড়ি এবং এরা সবাই কৃষক। নদী পার করে এ পারে এনে রাজশাহীর বিভিন্ন হাসপাতালে তাদের ভর্তি করা হয়েছে।
আহতদের ভাষ্যমতে, সকালে তারা বাংলাদেশের সীমানার ভেতরেই জমিতে কাজ করছিলেন। তখন বিএসএফ সদস্যরা ট্রাকে করে এসে তাদের ওপর অতর্কিতভাবে শর্টগানের ছাররা গুলি ছুঁড়তে শুরম্ন করেন। তারা তখন দিকবিদিক ছুঁটতে শুরম্ন করেন। আহত হন অনত্মত ১০ জন। তখন বিএসএফ সদস্যরা বাংলাদেশের সীমানার ভেতরে এসে তাদের কাজ করার হাসুয়া, কোদাল জব্দ করে নিয়ে যান।
জানতে চাইলে বিজিবির রাজশাহীর ১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফেরদৌস জিয়াউদ্দিন মাহমুদ বলেছেন, ছাররা গুলিতে বাংলাদেশি তিনজন কৃষক আহত হওয়ার খবর তাদের কাছে আছে। তবে ১০ জনের বিষয়টি তাদের জানা নেই। আর শর্টগান দিয়ে এলোপাথাড়ি রাবার বুলেট ছোঁড়া হয়েছে বলে তারা শুনেছেন। এ ব্যাপারে বিজিবির পড়্গ থেকে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে।
বিজিবির এই কর্মকর্তা বলেন, বিএসএফ তাদের জানিয়েছে যে, সকালে তিন-চারজন বাংলাদেশি ব্যক্তি ঘাস কাটতে কাটতে বাংলাদেশের সীমানত্ম অতিক্রম করে ভারতে ঢুকে পড়েছিলেন। তখন বিএসএফ রাবার বুলেট ছোঁড়ে। এ সময় বাংলাদেশিরা গ্রামে পালিয়ে আসেন। কিন্তু পরে গ্রামবাসী একত্রিত হয়ে বিএসএফের ওপর হামলা করতে যায়। এ সময় ‘আত্মরড়্গায়’ বিএসএসফ রাবার বুলেট ছোঁড়ে। তবে এ ঘটনায় বিজিবির পড়্গ থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।