সোনালী ডেস্ক: রাজশাহীর বাগমারা ও তানোর এবং নওগাঁর পোরশায় পানিতে ডুবে ২ শিশুসহ জনের মৃত্যু হয়েছে।
বাগমারা প্রতিনিধি জানান, বাগমারার গোবিন্দাপাড়া ইউনিয়নের দামনাশ হাট সংলগ্ন পুকুরের পানিতে ডুবে ৬ বছরের এক শিশু মারা গেছে। মৃত ওই শিশুর নাম মুরসালিন। সে হাট দামনাশ গ্রামের মামুনুর রশিদ মামুনের একমাত্র ছেলে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিকেলের দিকে ওই শিশুর মা মঞ্জুয়ারা বেগম পাটখড়ি নিতে বাড়ির পাশে দামনাশ হাট সংলগ্ন একটি পুকুর পাড়ে যান। এ সময় শিশু মুরসালিনও মায়ের সাথে ওই পুকুর পাড়ে গিয়েছিল। তার মা ছেলে মুরসালিনকে পুকুর পাড়ে বসে রেখে এক বোঝা পাটখড়ি মাথায় নিয়ে বাড়িতে রাখতে যান। কিছুড়্গণ পর তার মা ওই পুকুর পাড়ে ফিরে এসে যথাস্থানে ছেলেকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুজি শুরম্ন করেন। খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে সন্ধ্যার দিকে ওই পুকুরে পানিতে ডোবা অবস্থায় শিশু মুরসালিনকে দেখতে পায় পাড়ার লোকজন। পরে সেখান থেকে ওই শিশুকে উদ্ধার করে দ্রম্নত প্রসাদপুর স্বাস্থ্য কমপেস্নঙে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
তানোর প্রতিনিধি জানান, তানোরে পুকুরের পানিতে ডুবে রহিম উদ্দীন (২২) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার চৌবাড়িয়া বাজারের পাশে সোমবার পুকুরে রহিমের লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা কামারগাঁ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোসলেম উদ্দীনকে বিষয়টি জানান। পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তার লাশ উদ্ধার করে। রহিম পার্শ্ববর্তী মান্দা উপজেলার আয়োরপাড়া গ্রামের নূরমোহাম্মদের পুত্র। থানার অফিসার ইনচার্জ খাইরুল ইসলাম জানান, রহিম মৃগি রোগী ও প্রতিবন্ধী ছিলেন। পুকুরে পড়ে গিয়ে হয়তো আর উঠতে পারেননি। পানিতে ডুবে তিনি মারা গেছেন। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।
পোরশা (নওগাঁ) প্রতিনিধি জানান, পোরশায় পুনর্ভবা নদিতে গোসল করতে গিয়ে আপন (৬) নামের এক শিশু শিড়্গার্থীও মৃত্যু হয়েছে। সে উপজেলার নিতপুর মাস্টারপাড়ার আরমান আলীর ছেলে ও আলোর পথে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণির ছাত্র। পরবিারিক সূত্রে জানা গেছে, স্কুল বন্ধ থাকায় আপন রোববার দুপুরে সকলের অজানেত্ম বাড়ির পাশে পুনর্ভবা নদিতে গোসল করতে যায়। এ সময় সে পানিতে তলিয়ে যায়। তাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও পাওয়া যায়নি। পরে স্থানীয় জেলেরা রাতে নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে মৃত অবস্থায় আপনের ভাসমান লাশ উদ্ধার করে নিয়ে আসে। এ ব্যাপারে পোরশা থানা অফিসার ইনচার্জ শাহিনুর রহমান বলেন, বিষয়টি তারা অবগত হয়েছি।