তানোর প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোরে লিজ নিয়ে চাষকৃত পুকুরের পাহারাদারকে শ্বাসরোধ করে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। ওই পাহারাদারের নাম রইস উদ্দিন অনু (৬০)। তিনি মু-ুমালা পৌর এলাকার পাঁচন্দর গ্রামের মৃত ছমির উদ্দিনের পুত্র।
সোমবার সকালে খবর পেয়ে তানোর থানা পুলিশ পুকুর পাড় থেকে মাছ ধরার একটি জাল ও হাত-পাসহ কোমরে দড়ি দিয়ে বাঁধা অবস্থায় নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদনেত্মর জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। অপরদিকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৪ জনকে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই নইমুদ্দিন বাদি হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
মামলার ও পুলিশ সূত্র জানা গেছে, উপজেলার কোচুয়া গ্রামের হাবিবুর রহমানের পুত্র জাইদুরসহ তার ওয়ারিশদের কাছ থেকে কোচুয়া মৌজায় ১০ বিঘার একটি পুকুর গত ১০ মে ৩ বছরের জন্য ৭ লাখ ২০ টাকায় লিজ নিয়ে মাছ চাষ শুরু করেছেন মু-ুমালা পৌর এলাকার মইনপুর আলীতলা গ্রামের ইলিয়াস আলীর পুত্র তরিকুল ইসলাম। তরিকুল তার চাষকৃত ওই পুকুর পাহারার জন্য মাসিক ৬ হাজার টাকা বেতনে গত ১৬ আগস্ট পাচন্দর গ্রামের ছমির উদ্দিনের পুত্র রইস উদ্দিনকে নিয়োগ দেন। পাহারাদার রইসউদ্দিন পুকুর পাড়ে একটি শেড তৈরি করে দিনে ও রাতে সেখানে অবস্থান করতেন। সোমবার ভোরে এলাকাবাসী পুকুর পাড়ের ওই শেডের (ছোট ঘরে) ভেতরে তার হাত-পা বাঁধা লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন।
এ ব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খায়রুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদনেত্মর জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। লাশ দেখে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে রাতের কোন এক সময়ে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। তিনি বলেন, ময়না তদনেত্মর রিপোর্ট এলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা জাবে। এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। জড়িতদের গ্রেপ্তারের জন্য চেষ্টা চলছে।