এফএনএস: আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ টিআইবির সমালোচনা করে বলেছেন, দশম জাতীয় সংসদে ২৬ মিনিটে বিল পাস হয়েছে। সমস্যাটা কোথায়? তিনি আরও প্রশ্ন করেন, এই বিল পাস হওয়ার কারণে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি বাধাগ্রসত্ম হয়েছে কি না? গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীতে জাতীয় জাদুঘরে আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন হানিফ।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪ তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ওই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ উপকমিটি ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, গতকাল (গত বুধবার) টিআইবি (ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ) একটি রিপোর্ট দিয়েছে। যেখানে বলা হয়েছে, দশম জাতীয় সংসদ জনগণের প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ। সংসদে ২৬ মিনিটে বিল পাস হয়েছে। সমস্যাটা কোথায়? দেশের স্বার্থে, জনগণের স্বার্থে যদি কোনো বিল উত্থাপন হয়, সেটা সবার সম্মিলিতভাবে দীর্ঘ আলোচনার বিষয় যদি না থাকে, সকলে দ্রম্নত সিদ্ধানত্ম নিতেই পারে। সে ক্ষেত্রে কোনো বিলে দুই ঘণ্টার আলোচনা না করে, আধা ঘণ্টা আলোচনা করেও যদি সর্বসম্মতিক্রমে পাস হয়, তাহলে কী সমস্যা? আওয়ামী লীগের এ মুখপাত্র বলেন, আপনি বলতে পারেন এই বিল পাস হওয়ার কারণে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির ক্ষেত্রে বাধাগ্রসত্ম হয়েছে কি না? অন্য কোনো সমস্যার সৃষ্টি করেছে কি না? সেটা স্পষ্ট করে বলেন। যদি বাধা হয়ে থাকে, সে ক্ষেত্রে আপনি বলতে পারেন। বিল কীভাবে পাস হলো, কত সময়ে পাস হলো, সেটার সঙ্গে সংসদের যৌক্তিকতা নেই। গত বুধবার টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারম্নজ্জামান বলেন, ৭১ শতাংশ আইন এক মিনিট থেকে ৩০ মিনিটের মধ্যে পাস হয়ে গেছে। এটা কিন’ আরো বড় দুঃসংবাদ।
আমাদের যে সংসদ সদস্যরা, যারা আইনপ্রণেতা, তারা আইনটাকে সত্যিকার অর্থে দেখেছেন কি না, পড়েছেন কি না, কিসের ওপরে তারা ভোট দিয়েছেন, সেটি সম্পর্কে তাদের সম্যক ধারণা ছিল, এটা কিন’ আমরা বুকে হাত দিয়ে বলতে পারব না। কাজেই এ ক্ষেত্রে যে বড় একটা ঘাটতি, সেটার কিন’ প্রকট দৃষ্টানত্ম আমরা দেখতে পাচ্ছি।