এফএনএস: ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী গতকাল বৃহস্পতিবার বলেছেন, আলোচনা করতে চাইলে যুক্তরাষ্ট্রকে অবশ্যই যুগান্তকারী পরমাণু চুক্তি মানতে হবে এবং তেহরানের বির্বদ্ধে ‘অর্থনৈতিক সন্ত্রাস’ বন্ধ করতে হবে। খবর এএফপি’র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একতরফাভাবে ২০১৫ সালে করা পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়ার পর থেকেই তেহরান ও ওয়াশিংটনের মধ্যে উত্তেজনা বাড়তে থাকে। যুগান্তকারী এ চুক্তির আওতায় ইরানের পরমাণু কর্মসূচির লাগাম টেনে ধরার বিনিময়ে তেহরানকে নিষেধাজ্ঞা থেকে পরিত্রাণ দেয়া হয়।
ট্রাম্প সোমবার বলেন, তিনি কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান র্বহানির সঙ্গে সাক্ষাতের ব্যাপারে প্রস’ত রয়েছেন। তবে র্বহানি বলেছেন, পরমাণু চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বেরিয়ে যাওয়ার পর ওয়াশিংটন তেহরানের বির্বদ্ধে যেসব নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে তাদেরকে প্রথমে এসব নিষেধাজ্ঞা অবশ্যই প্রত্যাহার করে নিতে হবে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাভেদ জারিফ একই বার্তা পুনর্ব্যক্ত করেন।
মালয়েশিয়া সফরকালে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ইরানের জনগণের বির্বদ্ধে অর্থনৈতিক যুদ্ধে লিপ্ত রয়েছে। এমন পরিসি’তিতে ইরানের জনগণের বির্বদ্ধে অর্থনৈতিক সন্ত্রাস বন্ধ না করা পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের সাথে আমাদের পক্ষে আলোচনায় বসা সম্ভব না।